গ্রীসে ভয়াবহ দাবানলে কমপক্ষে ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে। রাজধানী এথেন্সের কাছে সমুদ্র উপকূলীয় এলাকা মাটিতে এ দাবানলের ঘটনা ঘটে। এতে একটি নৌকায় আগুন ধরে গেলে ঘটনাস্থলেই ১০ জনের মৃত্যু হয়। অন্যরা ঘরবাড়ি ও অন্যত্র মারা যান। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১০৪ জনের আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। আহতদের মধ্যে ১৬ শিশু রয়েছে, যাদের ১১ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে।

এদিকে শত শত কর্মী হতাহতদের উদ্ধারে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। তা ছাড়া আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে কাজ করছে দমকল বাহিনীসহ দেশটির সামরিক বাহিনীও। এদিকে সরকারের পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক সহায়তা চাওয়া হয়েছে।

দেশটির কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, একটি নৌকায় আগুন ধরে যাওয়ার পর ১০ পর্যটক সেখান থেকে পালিয়ে যান। তাদের খোঁজে উদ্ধার অভিযান চলছে।

প্রধানমন্ত্রী অ্যালেক্সিস সিপ্রাস জানিয়েছেন, মানবিক দৃষ্টিকোণ থেকে যতটুকু সম্ভব আমরা কাজ করে যাব। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে প্রয়োজনে সাড়া দিতে তিনি বসনিয়ায় তার রাষ্ট্রীয় সফর সংক্ষিপ্ত করে দেশে ফিরে এসেছেন। এই পরিস্থিতিকে অত্যন্ত কঠিন সময় বলে বর্ণনা করেছেন দমকল কর্মীরা।

মঙ্গলবার সকালে দাবানলে নিহতের সংখ্যা ২০ বলে নিশ্চিত করেছেন সরকারি মুখপাত্র দিমিত্রিশ জানাকোপোলাস।সোমবার সকালেই অ্যাথেন্সের কাছাকাছি অবস্থিত উপকূলীয় এলাকার বাসিন্দাদের নিজেদের বাড়ি-ঘর ছেড়ে নিরাপদে আশ্রয় নেয়ার পরামর্শ দেয়া হয়। হলিডে ক্যাম্প থেকেও শত শত শিশুকে নিরাপদে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।