পশ্চিম আফ্রিকার দেশ মালিতে শান্তিরক্ষা মিশনে নিয়োজিত বাংলাদেশ ফর্মড পুলিশ ইউনিট-২ এর উদ্যোগে অত্যন্ত জাঁকজমকপূর্ণভাবে মহান বিজয় দিবস পালিত হয়েছে। দিনের প্রথমভাগে বাংলাদেশ ক্যাম্পের স্মৃতিসৌধে পুস্প স্তবক অর্পণ করেন ব্যানএফপিইউ-২ এর দায়িত্বরত কমান্ডার মোহাম্মদ রাহাত গাওহারী সহ সকল কমান্ডিং অফিসার ও অন্যান্য সদস্যবৃন্দ । এরপর আনপোল আইপিও টিম লিডার মোস্তফা মাহমাতের নেতৃত্বে শ্রদ্ধা ও সম্মান নিবেদন করেন বিভিন্ন দেশের আইপিও এবং আইভরিকোস্ট সেনা ব্যাটিলিয়নের শান্তিরক্ষীরা। এ সময় বাংলাদেশ কন্টিনজেন্টের একটি চৌকস নারী দল সশস্ত্র সালাম প্রদর্শণ করেন।

দুপুর ১২ টায় বাংলাদেশের ৫১ তম মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে মালির গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও বিভিন্ন দেশের শান্তিরক্ষীদের উপস্থিতিতে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনা সভায় বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী স্বাধীনতার স্হপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবদান, ত্যাগ ও চৌকস নেতৃত্ব সকল শান্তিরক্ষীদের সামনে তুলে ধরা হয় এবং তাঁর পরিবারের সকল সদস্যদের সার্বিক কল্যাণ ও মঙ্গল কামনা করা হয়। বঙ্গবন্ধুকন্যা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এঁর বুদ্ধিদীপ্ত নেতৃত্ব ও বাংলাদেশের চলমান উন্নয়নে তাঁর অবদানের কথাও আলোচনা করা হয়।

মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে নিহত ৩০ লাখ শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে ধর্মীয় উপাসনালয়ে বিশেষ প্রার্থনা অনুষ্ঠিত হয়।

সন্ধ্যায় বাংলাদেশ শান্তিরক্ষীদের দ্বারা পরিচালিত মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বাংলাদেশের ইতিহাস-ঐতিহ্য তুলে ধরা হয় এবং মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে একটি তাৎপর্য পূর্ণ নাটিকা প্রদর্শিত হয়।

এ ছাড়া বাংলাদেশ ক্যাম্পের ভিতরে উজ্জ্বল নান্দনিক আলোকসজ্জার ব্যবস্থা করণের মাধ্যমে সাহারা মরুর প্রান্তরে বাংলাদেশের মহান বিজয় দিবসকে অতুলনীয় করে পালন করা হয়।

Previous post কাঠমান্ডুতে মহান বিজয় দিবস উদযাপিত
Next post বিজয় দিবসে গ্রিসে পানির ফোয়ারায় বাংলাদেশ
Close