জমকালো আয়োজনের মাধ্যমে বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর এবং পোল্যান্ড-বাংলাদেশের ৫০ বছরের সুসম্পর্ক বিষয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (২৬ নভেম্বর) পোল্যান্ডে বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল ওমর ফারুকের নেতৃত্বে স্বাধীনতার পঞ্চাশ বছর পূর্তি উদযাপন করা হয়।

পোল্যান্ডে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সুলতানা লায়লা হোসেন এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও বিভিন্ন দেশের কনস্যুলাররা অংশ গ্রহণ করেন ও পোল্যান্ডের স্থানীয় প্রশাসনের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাসহ স্থানীয় মেয়র, ব্যবসায়ীরা উপস্থিত ছিলেন। অন্যদের মধ্যে কনসাল অব বাংলাদেশ জার্মানি, সোসনোভিকের মেয়র, সিলেসিয়ার বর্ডার গার্ডের প্রধান, আঞ্চলিক সম্প্রসারণ সংস্থার সভাপতি, হিউম্যানিটাস বিশ্ববিদ্যালয়ের রেক্টর উপস্থিত ছিলেন। ফ্রান্স, সুইডেন, সার্বিয়া, লিথুনিয়া ও অন্যান্য দেশের কনসাল, সাইলেশিয়ার চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি, গভর্নর অফিস, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অন্যান্য উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। ইউরোপের বিভিন্ন দেশের ব্যবসায়ী, সামাজিক রাজনৈতিক, সংগঠনের নেতারা ও সাংবাদিকরা অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে স্থানীয় পোলিশ বেহালাবাদক শিল্পীরা বাংলাদেশ ও পোল্যান্ডের জাতীয় সংগীতের যন্ত্র সংগীত প্রদর্শন করে। পরে যুক্তরাজ্য ও ইতালি থেকে আসা ব্যান্ড তারকারা ও স্থানীয় শিল্পীরা বাংলাদেশের জনপ্রিয় সংগীত পরিবেশন করে উপস্থিত অতিথিদের মাতিয়ে রাখেন।

এছাড়াও বাংলাদেশ ও পোল্যান্ডের যৌথ শিল্পীদের উপস্থাপনায় দেশের গান ও রবীন্দ্র সংগীতের নৃত্য প্রদর্শিত হয়।

সাংস্কৃতিক পর্বের মাঝে বাংলা খাবারের বুফে আয়োজন করা হয়। দেশ-বিদেশের শতাধিক মানুষ দেশীয় ঐতিহ্যবাহী খাবারের স্বাদ গ্রহণ করে ভূয়সী প্রশংসা করেন।

৫০ বছরের কূটনৈতিক সম্পর্কের স্মৃতিস্বরূপ পোল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত ও বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল সবার উপস্থিতিতে কেক কেটে উভয় দেশের শান্তি, সমৃদ্ধি ও সম্পর্কের আরও উন্নয়নের আশা ব্যক্ত করেন।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, পোল্যান্ড ও বাংলাদেশের মধ্যে এ কূটনৈতিক সুসম্পর্ক আরও জোরদার হবে এবং ১৯৭২ থেকে ২০২২ এর ন্যায় সম্পর্ক আরও বহু বছর বজায় থাকবে।

Previous post জাতিসংঘ শান্তি পদক পেলেন বাংলাদেশি ১৪০ শান্তিরক্ষী
Next post কানাডার ক্যালগেরিতে অংকন আর্ট স্কুলের বার্ষিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান
Close