বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি মশিউর রহমান রাঙ্গা বলেছেন, রংপুরে বিএনপির সমাবেশকে কেন্দ্র করে আমরা ধর্মঘট ডাকিনি, মালিকরা গাড়ি চালায়নি। সম্প্রতি এক গণমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা বলেন।

মশিউর রহমান রাঙ্গা বলেন, ‘আল্লাহর কসম, আমরা ধর্মঘট ডাকিনি। সরকার আমাদের কোনো ভয় দেখায়নি। মালিকরা নিজেরাই বন্ধ রেখেছে। এর আগে আন্দোলন করতে গিয়ে বিএনপি আমাদের অজস্র গাড়ি ভেঙেছে। আমাদের অনেক তিক্ত অভিজ্ঞতা আছে। আমাদের গাড়ি ভাঙবে-পোড়াবে, কর্মীরা মারা যাবে, সেটা তো হতে দেব না। বাস মালিকরা আমাকে বলেছে, ২ হাজার বা ৫ হাজার টাকার জন্য দেড় কোটি-২ কোটি টাকা দামের গাড়ি ঝুঁকিতে ফেলতে চাই না, গাড়ি চালাতে চাই না। কারণ কোনো সমস্যা হলে কেউ ক্ষতিপূরণ দেবে না।’

নিজের নির্বাচনী এলাকায় বিএনপি সমাবেশ নিয়ে মশিউর রহমান রাঙ্গা বলেন, ‘সমাবেশে মানুষ দেখে কোনো দলের শক্তিমত্তা বোঝা যায় না। ১৯৯০ সালে হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ যখন ক্ষমতায়, তখন তিনি বিশাল সমাবেশ করলেন। এর ২ দিন পর তাকে পদত্যাগ করতে হলো। এখনো যদি আওয়ামী লীগ সমাবেশ করে, সেখানেও অনেক মানুষের সমাগম হবে। কিন্তু মানুষের মতামত জানা যাবে নির্বাচন, যদি প্রকৃত নির্বাচন হয়।’

জাতীয় পার্টির সব পদ থেকে বহিষ্কার প্রসঙ্গে রাঙ্গা বলেন, ‘আমি ৩৮ বছর ধরে জাতীয় পার্টির জেলা সম্পাদক, ১৮ বছর প্রেসিডিয়াম সদস্য ছিলাম। অথচ, কোনো কথা না বলে দলের গঠন ও নিয়মের ২০ ধারা দেখিয়ে আমাকে বহিষ্কার করেছে। আমি তো জাতীয় পার্টি ছাড়া অন্য দল করবো না। এখন দলের নেতৃত্ব কে দেবে, সেটা নিয়মতান্ত্রিকভাবে আসলে ভালো।’

Previous post ‘মানসিকভাবে আহত’ ন্যান্সি পেলোসি
Next post ২৬ দিনেও সন্ধান মেলেনি হজে গিয়ে নিখোঁজ বাংলাদেশির
Close