সম্প্রতি বাফলার ইসি মিটিং এ ঘোষণা দেওয়া হয়েছে, আগামী ২০ ও ২১ মে ২০২৩ এ বাংলাদেশ ইনডিপেন্ডডেন্ট ডে প্যারেড অনুষ্ঠিত হবে। এদিকে মেমোরিয়াল ডে কে সামনে রেখে ইতিপূর্বে আগামী ২৭ ও ২৮ মে ২০২৩ এ বাংলাদেশ মেলা হওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। ফলে একই সপ্তাহের ব্যাবধানে দুটি বড় ইভেন্ট কমিউনিটিতে একটি চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হয়ে দাঁড়িয়েছে।

তাছাড়া পরের মাসে অর্থাৎ ১৭ ও ১৮ জুন ২০২৩ এ অনুষ্ঠিত হওয়ার ঘোষণা রয়েছে আনন্দ মেলার। কম সময়ের মধ্যে পরপর কয়েকটি বড় বড় ইভেন্ট কমিউনিটির মানুষের উপভোগ্য হলেও স্পন্সর পাওয়া বা স্পন্সরদের জন্য চাপে পড়ার সামিল। চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি পরিহার করার উপায় হিসেবে বাফলার প্যারেডের দিন তারিখ পরিবর্তন করার জন্য কমিউনিটির অনেকেই পরামর্শ দিচ্ছেন। সমস্যা হচ্ছে- মার্চ মাসে রমজান পড়ায় মে মাসের ২০ ও ২১ তারিখ ধার্য করা হয়েছে। এখন বিপাকের মধ্যে বাফলা। এক. হল নিদ্ধারিত তারিখে চ্যাঞ্জের মুখোমুখি, দুই. রোজার পরপরই প্যারেডের আয়োজন করা অনেকটা অসম্ভব। কারণ এর জন্য যথেষ্ট সময় প্রয়োজন। তবে রোজার আগে করা সম্ভব ১৮ ও ১৯ মার্চ ২০২৩। (উল্লেখ্য, উক্ত তারিখের ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল বর্তমান প্রেসিডেন্ট কতৃক, তবে ইসির অনুমোদন সাপেক্ষে)। কিন্তু স্বাধীনতা দিবসের পূর্বে উদযাপন সমালোচনার সম্মুখ হতে পারে বিবেচনায় মে মাসের ২০ ও ২১ তারিখ ধার্য করেছে। এখন বাফলার উপর নির্ভর করছে। চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হবে না কমিউনিটির স্বার্থে সাংঘর্ষিকতা এড়িয়ে রোজার পূর্বেই প্যারেড করবে?

বিগত ইসি মিটিং এ দুটি সংগঠনকে বাফলার ইসি মেম্বার করেছে। এ ক্ষেত্রে সাবেক বাফলার প্রেসিডেন্ট নজরুল আলম আমাদের সংবাদদাতাকে জানান যে, সংবিধানিকভাবে বাফলা এই সময়ে কোন সংগঠনকে ইসি মেম্বার করতে পারে না। কারণ বাফলার সংবিধানের থার্ড এমেন্ডমেন্ট, ৬ এপ্রিল ২০২১ অনুযায়ী ‘প্যারেডের ৩০ দিনের মধ্যে ইসির এই বার্ষিক পর্যালোচনা সভায় প্যারেডের ঠিক পরেই ইসি কর্তৃক বিদ্যমান সদস্যদের সকল সদস্য মর্যাদা এবং সহযোগী সদস্যের অবস্থা পর্যালোচনা এবং সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

Previous post টরেন্টোতে উদীচী শিল্পীগোষ্ঠীর লোক সংগীত উৎসব ২৯ অক্টোবর
Next post জাতীয় পার্টি কারো দাসত্ব করবে না: জিএম কাদের
Close