চলতি বছর সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন ফরাসি লেখক আনি এর্নো।

বৃহস্পতিবার সুইডেনের স্টকহোমে রয়্যাল সুইডিশ অ্যাকাডেমি সাহিত্যে নোবেল বিজয়ী হিসেবে আনি এর্নোর নাম ঘোষণা করে।

নোবেল কমিটি তাদের ঘোষণায় বলেছে, আনি তার লেখনিতে সাহস এবং ‘ক্লিনিক্যাল’ তীক্ষ্ণতা প্রদর্শন করেছেন। এর সাহায্যে তিনি ব্যক্তিগত স্মৃতির শিকড়, বিচ্ছিন্নতা এবং সম্মিলিত সংযমের উন্মোচন করেছেন। ফরাসি এই লেখক তার লেখায় ধারাবাহিকভাবে বিভিন্ন কোণ থেকে লিঙ্গ, ভাষা ও শ্রেণি সম্পর্কিত শক্তিশালী বৈষম্য দ্বারা চিহ্নিত জীবনকে নিয়ে পরীক্ষা করেছেন। লেখিকার এই জীবন দীর্ঘ এবং কঠিন ছিল।

আনি এর্নো ১৯৪০ সালে জন্মগ্রহণ করেন এবং নরম্যান্ডির ছোট শহর ইভেটোতে বেড়ে উঠেন। যখন তাকে সাহিত্যে নোবেল পুরস্কারে ভুষিত করা হলো তখনও তিনি ফ্রান্সেই বসবাস করছেন।

১৯০১ সালে সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার প্রবর্তন করা হয়। এরপর থেকে এখন পর্যন্ত ১১৪ বার পুরস্কারটি দেওয়া হয়েছে। সব মিলিয়ে ১১৯ জন এই পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন।

প্রথম এবং দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের কারণে যথাক্রমে ১৯১৪,১৯১৮ এবং ১৯৪০,১৯৪১, ১৯৪২ ও ১৯৪৩ সালে নোবেল পুরস্কার দেওয়া হয়নি। এছাড়া ১৯৩৫ সালেও সাহিত্যে কাউকে নোবেল দেওয়া হয়নি।

প্রসঙ্গত, গত ৩ অক্টোবর চিকিৎসা বিজ্ঞানে বিজয়ীদের নাম ঘোষণার মাধ্যমে ২০২২ সালের নোবেল পুরস্কার দেওয়া শুরু হয়। এ বছর চিকিৎসা বিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন সুইডেনের জিনতত্ত্ববিদ সভান্তে পাবো। এছাড়া পদার্থে ফরাসি পদার্থবিজ্ঞানী অ্যালাইন অ্যাসপেক্ট, মার্কিন পদার্থবিজ্ঞানী জন এফ ক্লজার ও অস্ট্রিয়ার পদার্থবিজ্ঞানী অ্যান্টন জেলিঙ্গার যৌথভাবে নোবেল পেয়েছেন। রসায়নে যৌথভাবে তিন নোবেল জয়ী হলেন- ক্যারোলিন আর. বের্তোজি, মর্টেন মেলডাল এবং কে. ব্যারি শার্পলেস।

Previous post বিসর্জনে শেষ হলো দুর্গোৎসব
Next post আমেরিকা নিজেদের ব্যর্থতা স্বীকার করে না: প্রধানমন্ত্রী
Close