উচ্চ রক্তচাপ ও ভার্টিগোর সমস্যার কারণে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) গিয়েছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। অসুস্থতা বেড়ে যাওয়ায় মঙ্গলবার (৬ সেপ্টেম্বর) চিকিৎসকদের পরামর্শ নিয়েছেন তিনি।

মন্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসক ও বিএসএমএমইউর কার্ডিওলজি বিভাগের কনসালটেন্ট ডা. শেখ ফয়েজ আহমদ গণমাধ্যমকে জানান, মন্ত্রীর স্ত্রীও শারীরিক পরীক্ষার জন্য বিএসএমএমইউতে গিয়েছিলেন। মন্ত্রীর শারীরিক কিছু পরীক্ষা–নিরীক্ষা হয়েছে। বুধবার সেগুলোর রিপোর্ট দেওয়া হবে। সে মোতাবেক চিকিৎসা নেবেন ড. মোমেন।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, চিকিৎসকরা মন্ত্রীকে ইকোকার্ডিওগ্রাম ও রক্ত পরীক্ষা দিয়েছেন। সেগুলো করা হয়েছে কিন্তু ফলাফল বুধবার দেওয়া হবে। এসব পরীক্ষার ফলাফল পাওয়ার পর চিকিৎসকরা পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবেন।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে জানা যায়, শারীরিক অসুস্থার কারণেই সোমবার (৫ সেপ্টেম্বর) ভারত সফরে যাওয়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে যেতে পারেননি ড. মোমেন। সরকারপ্রধানের সঙ্গে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সফরে না যাওয়া বিরল ঘটনা।

যদিও মোমেনের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে নয়াদিল্লি যাওয়ার বিষয়টি চূড়ান্তই ছিল। এমনকি সফরের আগের দিন রোববার (৪ সেপ্টেম্বর) সংবাদ সম্মেলনে খোদ পররাষ্ট্রমন্ত্রীই জানিয়েছিলেন, তিনিও সফরে যাচ্ছেন।

তবে শেষ মুহূর্তে এ অসুস্থতার কারণেই তিনি সফরে যেতে পারেননি বলে জানানো হয় সরকারের তরফ থেকে।

Previous post পশ্চিমবঙ্গে বাংলাদেশের ইলিশ বিক্রি শুরু, খুশি ইলিশপ্রেমীরা
Next post মালদ্বীপের বিচারপতির সঙ্গে হাইকমিশনারের সাক্ষাৎ
Close