গত ২৫ শে আগস্ট বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় লস এঞ্জেলেসের সাইন্টোলজি অডিটোরিয়ামে এক সুধী সমাবেশে কবিতার আড্ডা ও সঙ্গীত সন্ধ্যার আয়োজন করে রাইটার্স এ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ, ক্যালিফোর্নিয়া। অডিটোরিয়াম পূর্ণ হয়েছিল লস এঞ্জেলেস-এর কবি সমাজ এবং সঙ্গীত পিপাসু সুধী সমাবেশ। অনুষ্ঠানটি উৎসর্গ করা হয়েছিল প্রয়াত শিল্পী নাট্যকার, সাংস্কৃতিক ব্যাক্তিত্ব মিজানুর রহমান শাহীন স্মরনে। তার মৃত্যুর দু’বছর পর রাইটার্স এ্যাসোসিয়েশন এমন ব্যাতিক্রম অনুষ্ঠান আয়োজন করে।

মিজানূর রহমান সম্পর্কে আলোচনা করেন কবি শহিদুল ইসলাম রনী, মিসেস খুশবু, সুলেমান খান তুহীন, নাজমুল চৌধুরী, ডাঃ রবিউল আলম, সেনটু, মমিনুল হক বাচ্চু, ফিরোজ আলম এবং কবি মুকতাদীর চৌধুরী তরুণ।

মিজান শাহীন-এর স্ত্রী মিসেস শিউলী মিজান তাঁর স্বামী মিজান শাহীন সম্পর্কে আলোচনা করতে যেয়ে সজল চোখে খুব বেশী কিছু বলতে পারেন নি। সবার চোখ আর্দ্র হয়েছিল।

কবিতা আবৃতি করেন- কবি শহিদুল ইসলাম রনী, এটর্নি এমী ঘোষ, সিমী, ছড়াকার আহমেদ বশীর, নজমুল চৌধুরী, জামাল, ফিরোজ আলম, মারটিন রহমান, কবি মশহুরুল হুদা, কবি মুকতাদীর চৌধুরী তরুণ।

এরপর একক সঙ্গীত সন্ধ্যা ছিল উপমহাদেশের প্রখ্যাত সঙ্গীত শিল্পী , স্বাধীন বাংলা বেতারের অন্যতম সংঘটক বীর মুক্তিযোদ্ধা একুশে পদকপ্রাপ্ত কাদেরী কিবরিয়া’র।

শিল্পী কাদেরী কিবরিয়া মিজান শাহীন সম্পর্কে অনেক স্মৃতি বিজড়িত মুহূর্ত-এর কথা উল্লেখ করলেন এবং ‘তুমি কি কেবলি ছবি’ গানটি গেয়ে উৎসর্গ করলেন মিজান শাহীন স্মরনে। এক ঘণ্টার বেশী সময় শিল্পী সঙ্গীত পরিবেশন করলেন। তাঁর পরিবেশনায় ছিল রবীন্দ্র সঙ্গীত, হারানো দিনের গান এবং লালন গীতি। সঙ্গীতের মীড়ে মীড়ে শিল্পীর স্বচ্ছল পরিবেশনা দর্শক শ্রোতা মন্ত্রমুগ্ধ হয়ে উপভোগ করলো। সমগ্র অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করলেন রাইটার্স এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মাইম শিল্পী ও কবি মশহুরুল হুদা।

অনুষ্ঠান শেষে সবাইকে আপ্যায়িত করা হয়। আপ্যায়নে ছিল দেশী রেস্তোরাঁ।

Previous post টিকার ফর্মুলা চুরির অভিযোগে ফাইজারের বিরুদ্ধে মডার্নার মামলা
Next post রাজাকারের তালিকা করতে সংসদে আইন পাস
Close