ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাবেক সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট বলেছেন, আমি বহিষ্কৃত কি না জানি না। আমি শেখ হাসিনার কর্মী হিসেবে কাজ করতে চাই।

শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে ধানমণ্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে সম্রাট এ কথা বলেন। এ সময় তাঁর সঙ্গে অসংখ্য নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট বলেন, ‘রাজনীতি নিয়ে আমার কোনো ভাবনা নেই, আমি সব সময় শেখ হাসিনার কর্মী ছিলাম, কর্মী হিসেবেই কাজ করে যাব।’

বহিষ্কার প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের জবাবে সম্রাট বলেন, ‘আমি বহিষ্কৃত কি না জানি না।’

এর আগে ধানমণ্ডি ৩২ নম্বর সম্রাট আসছেন শুনে দুপুর আড়াইটা থেকে তাঁর হাজার হাজার সমর্থক সেখানে উপস্থিত হন। তাঁরা নানা স্লোগানও দেন।

এর আগে গত ২৩ আগস্ট সম্রাটের জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন আদালত। এরপর অসুস্থতাজনিত কারণে আরও দুদিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

এ বিষয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালের কার্ডিওলজিস্ট বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ও ইউনিট প্রধান ডা. মো. রসুল আমিন (শিপন) বলেন, ‘বৃহস্পতিবার তাঁকে আমরা হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দিয়েছি। তবে, তিনি আজ দুপুরে হাসপাতাল ছেড়েছেন।’

ডা. মো. রসুল বলেন, ‘এখনো তিনি পুরোপুরি সুস্থ হননি। আমাদের হাসপাতালে সর্বশেষ সময় পর্যন্ত তার চিকিৎসা চলছিল। তিনি যেহেতু জামিনে মুক্তি পেয়েছেন, এখন নিজেই সিদ্ধান্ত নেবেন কোথায় চিকিৎসা চালিয়ে যাবেন। তবে, তার উন্নত চিকিৎসা প্রয়োজন। এখন সেই চিকিৎসাটা তিনি কোথায় নেবেন, সেটা পুরোটাই তার ব্যক্তিগত বিষয়।’

Previous post বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে সমাহিত হলেন মাহবুব তালুকদার
Next post আরও আইনি জটিলতার মুখে ট্রাম্প
Close