জসিম উদ্দিন ভূঁইয়া, কুয়েত

কুয়েত প্রবাসীদের দীর্ঘদিনের স্বপ্ন পূরণের কথা জানালেন দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আশিকুজ্জামান। তাদের দীর্ঘদিনের দাবি স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি কার্ড) পেতে যাচ্ছে তারা। এ কার্ডের মাধ্যমে ২২ ধরনের নাগরিক সেবা নিতে পারবেন তারা।

বাংলাদেশ দূতাবাস কুয়েতের ফেসবুক পেজে প্রথম সচিব দূতালয় প্রধান নিয়াজ মোর্শেদ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, দূতাবাসের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ও বাংলদেশ থেকে আসা নির্বাচন কমিশনে (ইসি) রেজিস্ট্রেশন টিম এনআইডি দেওয়া সংক্রান্ত যাবতীয় কার্যক্রম পরিচালনা করবে। বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন রেজিস্ট্রেশন টিম তিন সপ্তাহ অবস্থান করবে কুয়েতে।

যে সব কুয়েত প্রবাসীদের জাতীয় পরিচয়পত্র নেই তারা অনলাইন ও অফলাইন দুইভাবে আবেদন করার সুযোগ পাবেন। বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইটে প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে আবেদন করতে পারবেন।

দূতাবাসে অফিস সময়ে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও তথ্যাদি দিয়ে ফরম পূরণের মাধ্যমেও আবেদন করতে পারবেন। অনলাইন ও অফলাইনের মাধ্যমে স্মার্ট জাতীয় পরিচয় পত্রের আবেদনে ক্ষেত্রে যে সব কাগজপত্র লাগবে- অনলাইন জন্ম সনদ কপি, বৈধ বাংলাদেশি পাসপোর্ট কপি, ইউনিয়ন অথবা পৌরসভার হতে নাগরিক সনদ, ইউটিলিটি বিলের কপি ( বিদ্যুৎ, গ্যাস, পানি, টেলিফোন ) বিলের কপি, শিক্ষাগত যোগ্যতা সনদ যদি থাকে।

পিতা, মাতা, স্বামী, স্ত্রী এর জাতীয় পরিচয় পত্র নম্বর। স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র প্রাপ্তির জন্য আবেদনকারীর নামের তালিকা দূতাবাসের ফেসবুক পেজ ও ওয়েবসাইটের মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে।

এছাড়াও কুয়েতে থাকা প্রবাসী বাংলাদেশি নাগরিকদের কতগুলো জাতীয় পরিচয় পত্র প্রয়োজন তা নির্ধারণের জন্য দূতাবাস অনলাইন নিবন্ধন পদক্ষেপ নিয়েছে।

এ বিষয়ে কুয়েতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আশিকুজ্জামান জানান, প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য এনআইডি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এনআইডি পেলে কুয়েত প্রবাসীরা ২২টি নাগরিক সেবা গ্রহণ করতে পারবেন। সব কিছু ঠিক থাকলে সেপ্টেম্বর এনআইডি কার্যক্রম শুরু করতে পারবে বলেন জানান রাষ্ট্রদূত।

তিনি আরও জানান, মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট (এমআরপি) পাঁচ বছর ও ই-পাসপোর্ট পাঁচ কিংবা ১০ দশ বছর মেয়াদি করার সুযোগ পাবেন। তবে কুয়েত দূতাবাস ই-পাসপোর্ট দেওয়ার প্রক্রিয়া এখনো শুরু করেননি। অন্যদিকে প্রবাসীদের স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র দিতে বাংলাদেশ দূতাবাস এরইমধ্যে সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে।