একাত্তরের বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়ার কফিনে অভিবাদন জানালেন নিউইয়র্কে বসবাসরত বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ। ২৩ জুলাই জোহর নামাজের পর জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারে প্রয়াত এই রাজনীতিবিদের প্রথম নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এরপরই তার কফিন জাতীয় পতাকায় আচ্ছাদিত করে জানাজায় অংশগ্রহণকারী বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ অভিবাদন জানান।

মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মুকিত চৌধুরীর নেতৃত্বে অভিবাদন জানান লাবলু আনসার, রাশেদ আহমেদ, রেজাউল বারি, আবুল বাশার চুন্নু, মুজিবুল হক, নাজিম উদ্দিন, মাকসুদ মাওলা, আব্দুর রহমান, জাকারিয়া চৌধুরী, আমির আলী, নাসির উদ্দিন, হাজী আব্দুর রহমান, শামসুল হক, সাব্বির রহমান মতি প্রমুখ।

এর আগে জানাজায় ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়ার আত্মার মাগফেরাত কামনায় সকলের দোয়া চেয়েছেন জাতিসংঘে বাংলাদেশের ভারপ্রাপ্ত স্থায়ী প্রতিনিধি ড. মনোয়ার হোসেন, ভারপ্রাপ্ত কন্সাল জেনারেল এস এম নাজমুল হাসান এবং ডেপুটি স্পিকারের সহকারি একান্ত সচিব তৌফিকুল ইসলাম।
জানাজায় সর্বস্তরের প্রবাসীগণের মাঝে ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের সদস্য ও বাংলাদেশ অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশনের সভাপতি নূরউদ্দিন চৌধুরী এবং সেক্রেটারি আব্দুর রকিব মন্টু, নিউইয়র্কের বিশিষ্ট রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ী ও কম্যুনিটি এ্যাক্টিভিস্ট নুরুল আজিম, বাংলাদেশ মিশনের ফার্স্ট সেক্রেটারি (প্রেস) নূরএলাহি মিনা, কন্স্যুলেটের আসিফ আহমেদ, কক্সবাজার এসোসিয়েশনের নেতা এডভোকেট মতিউর রহমান, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক হাজী এনাম দুলাল মিয়া, নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগের সেক্রেটারি এমদাদ চৌধুরী, যুবলীগ নেতা সেবুল চৌধুরী, যুক্তরাষ্ট্র জাতীয় পার্টির নেতা আবু তালেব চৌধুরি চান্দু প্রমুখ। জানাজায় ইমামতি করেন মাওলানা আবু জাফর বেগ।

উল্লেখ্য, ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে ৯ মাস আগে নিউইয়র্কের মাউন্ট সিনাই হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন ডেপুটি স্পিকার অ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বি মিয়া (৭৬)। সেখানেই ২২ জুলাই তিনি মারা যান। মৃত্যুর সময় হাসপাতালে বড় মেয়ে ফাহিমা রাব্বী রিটা ছাড়াও ছিলেন প্রয়াত ডেপুটি স্পিকারের সহকারি একান্ত সচিব তৌফিকুল ইসলাম।

ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়ার লাশ বহনকারি কফিন নিউইয়র্ক সময় শনিবার রাত সাড়ে ১১টায় আমিরাত এয়ারলাইন্স যোগে ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেয় বলে জেএফকে এয়ারপোর্ট থেকে এ সংবাদদাতাকে জানান ডেপুটি কন্সাল জেনারেল এস এম নাজমুল হাসান। লাশের সাথে তার কন্যা এবং এপিএস যাচ্ছেন।