বিশ্বে দুর্বল পাসপোর্টের তালিকায় নবম স্থানে বাংলাদেশের পাসপোর্ট।

মঙ্গলবার বিশ্বের ১৯৯টি দেশের পাসপোর্ট সূচক প্রকাশ করেছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক পরামর্শক প্রতিষ্ঠান ‘হ্যানলি অ্যান্ড পার্টনার্স’।

প্রতি তিন মাস পরপর এই সূচক প্রকাশ করে সংস্থাটি। গত ১৭ বছর ধরে বিশ্বের কোন দেশের পাসপোর্ট কতটা শক্তিশালী তা নিয়ে প্রতি বছর র‌্যাংকিং প্রকাশ করে।

চলতি বছরের তৃতীয় সংস্করণে ১১২টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ১০৪তম। বাংলাদেশের সঙ্গে যৌথভাবে ১০৪তম অবস্থানে রয়েছে কসোভা ও লিবিয়া।

এর আগের সংস্করণে ১১৬ টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের পাসপোর্টের অবস্থান ছিল ১০৩তম।

সূচক অনুযায়ী, বাংলাদেশি পাসপোর্টধারীরা ভিসা ছাড়াই ৪১টি দেশ ভ্রমণ করতে পারেন। এসব গন্তব্যের মধ্যে ১৬টি আফ্রিকায়, ১১টি ক্যারিবীয় অঞ্চলে, সাতটি ওশেনিয়ায় (অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ড বাদে), ছয়টি এশিয়ায় এবং একটি দক্ষিণ আমেরিকায়।

দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে পাসপোর্টের দিক থেকে শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছে মালদ্বীপের পাসপোর্ট (৬৩তম)। এরপরেই আছে ভারত (৮৭তম), ভুটান (৯৩তম), শ্রীলঙ্কা (১০৩তম)।

দক্ষিণ এশিয়ায় বাংলাদেশের অবস্থান পঞ্চম। এই অঞ্চলে নেপাল (১০৬তম) ও পাকিস্তানের (১০৯তম) চেয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ।

আর র‌্যাংকিংয়ের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে জাপান ও সিঙ্গাপুর।

Previous post এস এম সুলতান স্মরণে কাঠমান্ডুতে চিত্র প্রদর্শনী
Next post ফিনল্যান্ড ও সুইডেনকে ন্যাটোভুক্ত করতে মার্কিন সিনেটের উদ্যোগ
Close