ওয়ার্ল্ড রেসলিং এন্টারটেইনমেন্টের (ডব্লিউডব্লিউই) ফ্ল্যাগশিপ শো স্ম্যাকডাউনের মূল ইভেন্টে এই প্রথম কোনো আরব নারী অংশগ্রহণ করেন। গত বছরের নভেম্বরে ডব্লিউডব্লিউইয়ে অংশ নেন আরব বংশোদ্ভুত কানাডীয় পেশাদার রেসলার আলিয়াহ।

এরমধ্য দিয়ে টানা ২০ বছর ধরে প্রতিবছরই হতে থাকা স্ম্যাকডাউন শোতে এই প্রথম কোনো আরব নারীর অংশগ্রহণের মতো ঘটনা ঘটল।

কানাডায় জন্ম হলেও আলিয়াহর বাবা-মা ইরাকি ও সিরিয়ান। ১৯৯০-র দশকে তার বাবা-মা কানাডায় চলে যান। সেখানেই জন্ম হয় ও বেড়ে ওঠেন আলিয়াহ।

কিন্তু আরব পরিবারে বেড়ে উঠেও একজন পেশাদার রেসলার হয়ে অসম্ভব কাজকে সম্ভব করেছেন আলিয়াহ। আলিয়াহ’র প্রকৃত নাম নহুফ আল আরাবি। কানাডার টরেন্টো শহরে জন্মেছেন তিনি।

কানাডায় জন্ম হলেও রেসলার হয়ে ওঠার পথটা খুব কঠিন ছিল আরব নারী আলিয়াহর। রেসলার হওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়ার পরই পরিবারের সঙ্গে মতবিরোধ দেখা দেয় তার। তার স্বপ্নের কথা জানতে পেরে বেঁকে বসেছিল আলিয়াহর পরিবার।

কিন্তু দমে যাননি তিনি। খণ্ডকালীন কাজের কথা বলে প্রশিক্ষণ নিতে চলে যান আলিয়াহ। ১৬ বছর বয়স থেকেই শুরু হয় তার রেসলার হওয়ার প্রশিক্ষণ। পরে ২০১৫ সালে ডব্লিউডব্লিউইতে ডাক পান আলিয়াহ। আর ২০২১ সালে এসে স্ম্যাকডাউনেই অংশগ্রহণ করলেন তিনি।

আলিয়াহর ভাষায়, যদি আপনার হৃদয়ে কোনো স্বপ্ন থাকে, তা অনুসরণ করা উচিত। সবকিছুই সম্ভব। আল জাজিরাকে আলিয়াহ বলেন, এটা পরাবাস্তব মনে হয়। আমি যখন ছোট ছিলাম তখন থেকেই এটি আমার সবচেয়ে বড় স্বপ্ন।

শেষবার ২০০২ সালে মধ্যপ্রাচ্যে গিয়েছিলেন। সেখানে এখনো তার অনেক আত্মীয় থাকেন। আরব নারীদের জন্য তিনি সবসময় অনুপ্রেরণা হতে চান। তাই তার লক্ষ্য এবার মধ্যপ্রাচ্যে পারফর্ম করা।

Previous post শিকাগোতে অনারারী কনসাল জেনারেল মুনির চৌধুরীর মেয়াদ বাড়ল ৫ বছর
Next post গ্রিন কার্ড পেলেন শাকিব খান!
Close