গত ২৪ বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন দরপতন জাপানি মুদ্রা ইয়েনের। সোমবার (১৩ জুন) দিনের শুরুতে ডলারের বিপরীতে ইয়েনের মূল্য ব্যাপকভাবে পড়ে যায়। প্রতি ডলারের বিপরীতে ১৩৫.২২ ইয়েন দরপতন ঘটেছে। ১৯৯৮ সালের অক্টোবর মাসের পর এই প্রথম জাপানি মুদ্রার এত বেশি দরপতন ঘটলো।

বিশ্লেষকরা বলছেন, মুদ্রানীতি কঠোর না করার কারণে জাপানি মুদ্রার এই দরপতন ঘটেছে। যখন মার্কিন ফেডারেল রিজার্ভসহ বহু দেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংক মুদ্রাস্ফীতি নিয়ন্ত্রণের জন্য ব্যাংক সুদের হার বাড়াচ্ছে তখন জাপান এ ব্যাপারে একেবারেই উদাসীন রয়েছে।

এছাড়া, জাপানের শেয়ারবাজার নিক্কির মূল্যসূচকেও বড় পতন ঘটেছে। আজ সকালে লেনদেনের শুরুতেই ৩.০৫ ভাগ দরপতন ঘটেছে। এতে মূল্যসূচক কমে ২৬,৯৭৫ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক অভিযানের পর বিশ্বের বহু দেশে অর্থনৈতিক সংকট দেখা দিয়েছে বিশেষ করে যেসব দেশ রুশ-বিরোধী নিষেধাজ্ঞায় শামিল হয়েছে সেসব দেশে মুদ্রাস্ফীতি ও মূল্যস্ফীতি বেড়েছে। আমেরিকা, ব্রিটেন থেকে শুরু করে ইউরোপের প্রায় সব দেশ মুদ্রাস্ফীতির কবলে পড়েছে।

Previous post শুল্কমুক্ত বাণিজ্য সুবিধার অনুমোদন চায় বাংলাদেশ
Next post মিশিগানে বাংলাদেশি প্রবাসীদের সঙ্গে পুলিশের মতবিনিময়
Close