যুক্তরাষ্ট্রের আইওয়া রাজ্যে একজনের হামলায় দুই নারী নিহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, চার্চের পার্কিং এরিয়ায় এক বন্দুকধারীর হামলায়

দুই নারী নিহত হয়েছেন। পরে ওই ব্যক্তি আত্মহত্যা করেন।

যুক্তরাষ্ট্রে সাম্প্রতিক সময়ে গুলিতে অসংখ্য নিহতদের সঙ্গে আরও তিনজন যোগ হলো।

বাফালো, উভালডে ও ওকলাহোমায় সাম্প্রতিক বন্দুক হামলা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের দেওয়া গুরুত্বপূর্ণ ভাষণের পর এ ঘটনা ঘটল।

এ ছাড়া বৃহস্পতিবার উইসকনসিনে আরও একটি বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটে। সেখানে হামলায় শেষকৃত্যে অংশ নেওয়া দুই ব্যক্তি আহত হন।

স্টোরি কাউন্টি শেরিফের অফিসের প্রধান ডেপুটি নিকোলাস লেনি বলেন, কর্নস্টোন চার্চের ভেতরে অনুষ্ঠান চলাকালে বাইরে ঘটে এ বন্দুক হামলার ঘটনা। ঘটনাস্থলে এসে তিনজনকেই মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়।

তিনি তাদের পরিচয় এবং তাদের মধ্যে কী সম্পর্ক ছিল তা জানাননি।

লেনি বলেন, এটি বিচ্ছিন্ন ও এক ব্যক্তির দ্বারা ঘটানো ঘটনা বলে মনে হচ্ছে।

এর কিছুক্ষণ আগে বাইডেন কংগ্রেসের প্রতি অস্ত্রের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ, ব্যাকগ্রাউন্ড যাচাই-বাছাই এবং নির্বিচার গুলির ঘটনা ঠেকাতে অন্যান্য অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা বাস্তবায়নের আহ্বান জানান।

প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘অনেক হয়েছে, অনেক হয়েছে।’

সাম্প্রতিক সময়ে যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুকহামলার ঘটনা বেড়েই চলেছে। নিউ ইয়র্কের এক হামলায় কয়দিন আগে ১০ জন কৃষ্ণাঙ্গ নিহত হন। এর পর টেক্সাসে বন্দুক হামলায় নিহত হয় ১৯ শিশু ও দুই শিক্ষক। পরে ওকলাহোমায় হামলায় দুই চিকিৎসক, একজন রিসিপসনিস্ট ও এক রোগী নিহত হন।

Previous post বাংলাদেশকে শ্রম–মানোন্নয়নের তাগিদ যুক্তরাষ্ট্রের
Next post কানাডায় ইতিহাস গড়লেন বাংলাদেশি ডলি বেগম
Close