বাংলাদেশ জাতীয় সংসদে সরকার দলীয় হুইপ আতিউর রহমান আতিক ২৯ মে নিউইয়র্কে প্রবাসীদের এক সমাবেশে বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার বিচক্ষণতাপূর্ণ নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের মডেলে পরিণত হয়েছে। এটা যাদের সহ্য হচ্ছে না, তারাই এই প্রবাসে বসে নির্জলা মিথ্যাচার করছে। একাত্তরের স্টাইলে তারা ধর্ম গেল ধর্ম গেল যিকির তুলেছে। আসলে মিথ্যাচারে লিপ্তরা হচ্ছে একাত্তরের রাজাকার আর আলবদরের প্রেতাত্মা এবং তারা আস্কারা পাচ্ছে বিএনপির। এহেন ষড়যন্ত্র সম্পর্কে বাংলাদেশের চেতনায় বিশ্বাসী প্রতিটি প্রবাসীকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।

শেরপুর জেলা সমিতির উদ্যোগে এবং সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা সাংবাদিক আবুল কাশেমের সভাপতিত্বে এ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগ নেতা আতিউর রহমান আতিক এমপি আরো বলেন, গ্রাম-গঞ্জের চেহারা পাল্টে গেছে। উন্নয়নের পরশ পাচ্ছেন সর্বস্তরের মানুষ। তাই নিরপেক্ষভাবে সকলে ভোট দেয়ার সুযোগ পেলে বঙ্গবন্ধুৃর নৌকার নিরঙ্কুশ বিজয় কেউই ঠেকিয়ে রাখতে পারবে না। এটাই বাস্তবতা। এবং এটাই সত্য। সকল প্রবাসীকে আমন্ত্রণ জানাচ্ছি নিজ এলাকায় যান এবং প্রত্যক্ষ করুন বর্তমান বাংলাদেশ।

সমাবেশের পক্ষ থেকে স্বাগত বক্তব্যে আবুল কাশেম শেরপুর জেলার সামগ্রিক উন্নয়নের ধারাবিবরণীর পাশাপাশি শেরপুর জেলা সদরে পূর্ণাঙ্গ একটি বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিকেল কলেজ এবং শেরপুর জেলাকে রেল যোগাযোগের আওতায় আনার প্রতিশ্রুতির দ্রুত বাস্তবায়ন দেখতে চান। এর জবাবে আতিক এমপি বলেন, বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টিতে রয়েছে। সম্ভাব্যতা যাচাই করা হচ্ছে। অগ্রাধিকারের তালিকাতেও দেখেছি। এখন শুধু সময়ের ব্যাপার। এ সময় তিনি শেখ হাসিনার সুস্বাস্থ্য এবং দীর্ঘায়ু কামনায় সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন।
এতে অন্যান্যের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন শেরপুর জেলা সমিতির সভাপতি মামুন রাশেদ, সেক্রেটারি মোস্তফা সাদী, সাবেক সভাপতি নাহিদ রায়হান, জান্নাত রহমান তারামনি, আক্তারুজ্জামান, সারোয়ার আলম সিরাজুল ইসলাম, নাইস চৌধুরী, রাকিবুল ইসলাম। অতিথি হিসেবে আরো বক্তব্য দেন জামালপুর জেলা সমিতির সাবেক সভাপতি জিল্লুর রহমান এবং বাংলাদেশ প্রতিদিনের উত্তর আমেরিকা সংস্করণের নির্বাহী সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা লাবলু আনসার। হুইপের স্ত্রী শান্তনা রহমান শান্তা, কন্যা ডা. শারমিন রহমান অমি এবং অপিও শেরপুর তথা বাংলাদেশের সাম্প্রতিক উন্নয়ন-অগ্রগতির কথা বলেন।

Previous post আসছে নতুন জোট ‘গণতন্ত্র মঞ্চ’
Next post কানাডায় ম্যারাথন দৌড়ে দুই বাংলাদেশি
Close