সুইডেনের ছবি ‘ট্রায়াঙ্গেল অব স্যাডনেস’ জিতে নিলো কান চলচ্চিত্র উৎসবের ৭৫তম আসরের সর্বোচ্চ পুরস্কার স্বর্ণপাম (পাম ডি অর)। রুবেন অস্টলান্ড পরিচালিত এই ছবিকে দেয়া হলো উৎসবের সবচেয়ে বড় সম্মান।

রুবেন এর আগেও স্বর্ণপাম জিতেছেন ২০১৭ সালে তার ‘দ্য স্কয়ার’ ছবির জন্য। পর পর দুই ছবির জন্য এমন অর্জন বিশ্ব চলচ্চিত্রের ইতিহাসে আগে ঘটেনি।

শনিবার (২৮ মে) বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ১২টায় পালে দে ফেস্টিভাল ভবনের গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরে বসেছিল সমাপনী আয়োজন।

এবারের আসরের মূল প্রতিযোগিতা শাখার বিচারকদের প্রধান ফরাসি অভিনেতা ভাসোঁ লাদোঁ এবং মেক্সিকান পরিচালক আলফনসো কুয়ারন স্বর্ণপাম তুলে দেন রুবেন অস্টলান্ডের হাতে।

সমাপনী অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেছেন বেলজিয়ান অভিনেত্রী ভার্জিনি এফিরা।

৭৫তম কান চলচ্চিত্র উৎসবের বিজয়ী তালিকা:
স্বর্ণপাম: ট্রায়াঙ্গেল অব স্যাডনেস (রুবেল অস্টলান্ড, সুইডেন)

গ্র্যাঁ প্রিঁ (যৌথভাবে): স্টারস অ্যাট নুন (ক্লেয়ার ডেনি, ফ্রান্স) এবং ক্লোজ (লুকাস ডোন্ট, বেলজিয়াম)

সেরা পরিচালক: ডিসিশন টু লিভ (পার্ক চ্যান-উক, দক্ষিণ কোরিয়া)

সেরা চিত্রনাট্যকার: তারিক সালেহ (ছবি: বয় ফ্রম হ্যাভেন, সুইডেন)

সেরা অভিনেত্রী: জার আমির ইব্রাহিমি (ছবি: হলি স্পাইডার, ইরান)

সেরা অভিনেতা: সং কাং হো (ছবি: ব্রোকার, দক্ষিণ কোরিয়া)

জুরি প্রাইজ (যৌথভাবে): দ্য এইট মাউন্টেন (ফেলিক্স ফন খ্রোনিনেন ও শার্লোট ফান্দারমিয়ার্স, বেলজিয়াম) এবং ইও (ইয়াজি স্কলিমোস্কি, পোল্যান্ড)

কান উৎসবের ৭৫ বছর পূর্তি পুরস্কার: জ্যঁ-পিয়েরে দারদেন ও লুক দারদেন (টরি অ্যান্ড লকিটা, বেলজিয়াম)

ক্যামেরা দ’র: জিনা গামেল ও রাইলি কিয়াও (ছবি: ওয়ার পনি, যুক্তরাজ্য-যুক্তরাষ্ট্র)

ক্যামেরা দ’র (বিশেষ সম্মান): হায়াকাওয়া চিয়ে (ছবি: প্ল্যান সেভেনটি ফাইভ, জাপান)

সেরা স্বল্পদৈর্ঘ্য ছবি: দ্য ওয়াটার মারমার্স (জিয়ানিং চেন, চীন)

স্বল্পদৈর্ঘ্য ছবি (বিশেষ সম্মান): মেলানকলি অব মাই মাদার’স লালাবাইস (অবিনাশ বিক্রম শাহ, নেপাল)

Previous post লস এঞ্জেলেসে খোলা হল ‘এ্যালায়েন্স অব সাউথ এশিয়ান আমেরিকান লেবার’র চ্যাপ্টার ১৮
Next post রেকর্ডম্যান আনচেলত্তি
Close