যুক্তরাষ্ট্রের ওয়েস্ট ভার্জিনিয়ায় এক পার্টিতে বন্দুকধারী হামলা চালানোর পর প্রত্যক্ষদর্শী এক নারীর গুলিতে ওই বন্দুকধারীর মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার (২৮ মে) বিবিসির প্রতিবেদনে জানানো হয়, বুধবার (২৫ মে) ওয়েস্ট ভার্জিনিয়ার চার্লস্টনে একটি এপার্টমেন্ট কমপ্লেক্সের বাইরে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তির নাম ডেনিস বাটলার (৩৭)। তিনি একজন চিহ্নিত অপরাধী বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, চার্লস্টনে একটি এপার্টমেন্ট কমপ্লেক্সের বাইরে অনুষ্ঠিত একপার্টির পাশ দিয়ে দ্রুতগতিতে গাড়ি চালিয়ে যাচ্ছিলেন ডেনিস।

পার্টিতে শিশুরা থাকায় তাকে গাড়ির গতি কমাতে বলেন উপস্থিত লোকজন। পরে একটি এআর-১৫ রাইফেল নিয়ে ফিরে এসে গুলি চালাতে শুরু করেন তিনি।

পুলিশের মুখপাত্র টনি হ্যাজেলেট এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, ওই ব্যক্তি গুলি চালাতে শুরু করলে পার্টিতে উপস্থিত এক নারী তার ব্যাগ থেকে একটি বন্দুক বের করে তার ওপর পাল্টা গুলি চালান। এতে ঘটনাস্থলেই ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়।

ওই নারীর পরিচয় প্রকাশ করা হয়নি। তবে এ ঘটনার তদন্তে তিনি সহায়তা করছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ আনা হবে ন বলেও জানানো হয়েছে।

টনি হ্যাজেলেট আরও বলেন, ওই নারী স্থানীয় কমিউনিটির একজন সদস্য যিনি আইনসম্মতভাবে নিজের অস্ত্র বহন করছিলেন। হুমকির মুখে পড়ে তিনি পদক্ষেপ নেন এবং মানুষের জীবন বাঁচান।

ডেনিস কীভাবে তার রাইফেলটি পেয়েছে তা এখনও নিশ্চিত নয়। তবে একজন অপরাধী হিসেবে তার অস্ত্র বহনের অনুমতি ছিল না বলে নিশ্চিত করেছে পুলিশ।

উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রে একের পর এক বন্দুক হামলার ঘটনায় দেশটির অস্ত্র আইন নিয়ে নতুন করে বিতর্কের শুরু হয়েছে। এর আগে মঙ্গলবার (২৫ মে) টেক্সাসের একটি স্কুলে বন্দুক হামলায় ১৯ শিশুসহ ২১ জনের মৃত্যু হয়।

Previous post আর্থিক সংকটে বিবিসি, ছাঁটাই হচ্ছেন হাজারো কর্মী
Next post লস এঞ্জেলেসে খোলা হল ‘এ্যালায়েন্স অব সাউথ এশিয়ান আমেরিকান লেবার’র চ্যাপ্টার ১৮
Close