রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বুধবার ইউক্রেনের খেরসন ও জাপোরিঝজিয়ার নাগরিকদের জন্য একটি ডিক্রি জারি করেছেন।

খেরসন ও জাপোরিঝজিয়ার নাগরিকরা যেন সহজেই রাশিয়ার নাগরিকত্ব ও পাসপোর্ট পান সেটি নিশ্চিত করতে এ ডিক্রি জারি করেছেন তিনি।

এই ডিক্রির মাধ্যমে দুটি অঞ্চলকে রাশিয়ার অধীনে নিয়ে আসার বিষয়টি আরেক ধাপ এগিয়ে গেল।

ইউক্রেনের লুহানেস্ক ও দোনেৎস্কেও এই সুবিধা দিয়ে রেখেছেন পুতিন। নতুন ডিক্রির মাধ্যমে এই বিষয়টি আরও বিস্তৃত করলেন তিনি।

২০১৯ সাল থেকে লুহানেস্ক ও দোনেৎস্কে ৮ লাখ রাশিয়ান পাসপোর্ট ইস্যু করেছে পুতিনের সরকার।

এদিকে গত মার্চ মাসের শুরুর দিকেই খেরসনের দখল নেয় রাশিয়া। তাছাড়া তারা জাপোরিঝজিয়ার কিছু অংশও নিজেদের অধীনে নিয়ে এসেছে।

খেরসনে ইউক্রেনীয় স্থানীয় প্রশাসনকে উৎখাত করে সেখানে নিজেদের সামরিক-বেসামরিক প্রশাসনকে বসিয়েছে রাশিয়া।

রাশিয়ার আজ্ঞাবহ এ প্রশাসন এ মাসের শুরুতে জানায়, তারা পরিকল্পনা করছে, খেরসনকে রাশিয়ায় অন্তর্ভুক্ত করে নিতে তারা প্রেসিডেন্ট পুতিনের কাছে আবেদন জানাবেন।

এদিকে রাশিয়া যখন এ দুটি অঞ্চলকে তাদের অংশ হিসেবে করে নেওয়ার সব ব্যবস্থা করছে তখন ইউক্রেন জানিয়েছে তারা তাদের সব অঞ্চল পুনরায় দখল নেবে।

Previous post টেক্সাসের স্কুলে হামলা চালানো কে এই তরুণ
Next post বাংলাদেশি দুই শান্তিরক্ষী মরণোত্তর পেলেন ‘দ্যাগ হ্যামারশোল্ড’
Close