একটি নৌযান উল্টে অভিবাসন প্রত্যাশী অন্তত ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের কোস্ট গার্ড।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, যুক্তরাষ্ট্রের পুয়ের্তো রিকোর দেশেচেও দ্বীপের ১০ নটিকাল মাইল দূরে ওই উল্টে যাওয়া নৌযানটি শনাক্ত হয়।

এক টুইট বার্তায় মার্কিন কোস্ট গার্ড জানায়, স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ৩১ আরোহীকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। তবে ওই নৌযানে সর্বমোট কতজন অভিবাসন প্রত্যাশী ছিল তা জানা যায়নি। ৮ জন আহতকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আর বাকিদের পুয়ের্তো রিকোয় নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

মার্কিন কোস্ট গার্ড বলেছে, বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় দুপুরের আগে শুল্ক ও সীমান্ত সুরক্ষা বিভাগের উড়োজাহাজের ক্রুরা ওই উল্টে যাওয়া নৌকাটি দেখতে পায়; সেসময় পানিতে যাদের দেখা গিয়েছিল তাদের গায়ে লাইফ জ্যাকেট ছিল না।

মার্কিন শুল্ক ও সীমান্ত সুরক্ষা বিভাগের এক মুখপাত্র জেফরি কুইননসের বরাত দিয়ে নিউ ইয়র্ক টাইমস জানায়, উল্টে যাওয়া নৌযানের বেশিরভাগ আরোহীই হাইতির নাগরিক, তবে উদ্ধার হওয়াদের মধ্যে ডমিনিকান রিপাবলিকেরও দুজন আছেন।

তিনি আরও জানান, অভিবাসন প্রত্যাশীবোঝাই নৌযানটি ডমিনিকান রিপাবলিক থেকে যাত্রা করেছিল, বিপজ্জনক মোনা প্যাসেজের ভেতর দিয়ে পুয়ের্তো রিকোর পশ্চিম পাশে যাওয়ার পথে এটি উল্টে যায়।

Previous post যুক্তরাষ্ট্রে ৪০ বছরে সর্বোচ্চ মুদ্রাস্ফীতি, বাড়ল ভোগ্যপণ্যের দাম
Next post বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত আকি রহমানের এভারেস্ট জয়
Close