যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত এক মিলিয়নেরও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

হোয়াইট হাউসের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে এনবিসি নিউজ। বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের শুরু থেকেই বিশ্বের সর্বোচ্চ রেকর্ডকৃত মৃত্যুর দেশ যুক্তরাষ্ট্র।

এক মিলিয়নের চেয়ে বেশি মৃত্যুর সংখ্যাটি যুক্তরাষ্ট্রের ১০তম বৃহত্তম শহর ক্যালিফোর্নিয়ার সান জোসের জনসংখ্যার সমতুল্য। যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যুর সংখ্যা অত্যাশ্চর্য গতিতে পৌঁছেছিল এবং দেশটিতে ভাইরাসের প্রথম কেস নিশ্চিত করার ২৭ মাস পরে মোট মৃত্যু সংখ্যা এক মিলিয়ন ছাড়িয়ে গেলো।

সঙ্কুল পরিস্থিতিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, তার দেশ দুঃখজনক একটি মাইলফলক চিহ্নিত করছে। তিনি বলেন, প্রতিটি মৃত্যু একটি অপূরণীয় ক্ষতি।

উল্লেখ্য, এটি বিশ্বের সর্বোচ্চ সরকারি মৃত্যুর তালিকার শীর্ষে, যদিও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বিশ্বাস করে যে প্রকৃত মৃত্যুর সংখ্যা অনেক বেশি হতে পারে।

তথ্যানুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রে ৩৩০ মিলিয়ন জনসংখ্যার মধ্যে ৮০ মিলিয়নেরও বেশি কোভিড কেস শনাক্ত হয়েছে, যা মৃত্যুর সংখ্যার (এক মিলিয়ন) চেয়ে আশি গুণ বেশি। যুক্তরাষ্ট্রে প্রথম নিশ্চিত হওয়া কোভিড আক্রান্ত পাওয়া যায় ২০২০ সালের ২০ জানুয়ারি। আক্রান্ত সেই ব্যক্তি চীনের উহান থেকে সিয়াটলের বাড়িতে এসেছিল, যে চীনে ২০১৯ সালের ডিসেম্বরেই কোভিড মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়তে শুরু করেছিল।

এদিকে, কোভিডে মৃতদের জন্য বহু মার্কিন পরিবার সমাধির বদলে পুড়িয়ে ফেলাকে বেছে নিচ্ছেন। অন্যদিকে, যুক্তরাষ্ট্রে মহামারি-পরবর্তী বিনিয়োগ কীভাবে বাড়ানো করা যায় তা নিয়ে আলোচনা করার জন্য দেশটির নেতারা বৃহস্পতিবার (১২ মে) বৈঠক করেন।