শ্রীলঙ্কায় শান্তি ফেরাতে দেশটিকে বাংলাদেশ আরও সহায়তা দেওয়ার চিন্তা করছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

বুধবার (১১ মে) সন্ধ্যায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমরা শ্রীলঙ্কাকে কিছু সহায়তা দিয়েছি। আরও সহায়তা দেওয়ার চিন্তা করছি। আমরা চাই দেশটিতে দ্রুত শান্তি ও স্থিতিশীলতা ফিরে আসুক। আমরা শুধু শ্রীলঙ্কা নয়, সব বন্ধু রাষ্ট্রে শান্তি ও স্থিতিশীলতা চাই।

বাংলাদেশের অবস্থা শ্রীলঙ্কার মতো হবে না উল্লেখ করে ড. মোমেন বলেন, আমাদের রফতানি ও রেমিট্যান্স অনেক বেশি। ঋণ পরিশোধ করার ক্ষমতাও ভালো। কাজেই বাংলাদেশ কখনও শ্রীলঙ্কার মতো হবে না।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, চীনের সঙ্গে আমাদের অনেক চুক্তি হয়েছে। কিন্তু টাকা নেওয়া হয়নি। আমরা ঋণ নেওয়ার ক্ষেত্রে অত্যন্ত বিচক্ষণ। অনেক হিসেব করে আমরা ঋণ নিই। আমরা বেশিরভাগ ঋণ আন্তর্জাতিক সংস্থা থেকে নেওয়া।

এর আগে, ঢাকায় নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত লি জিমিংয়ের সঙ্গে বৈঠক করেন ড. মোমেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পর চীনা রাষ্ট্রদূত লি জিমিং সাংবাদিকদের বলেন, আমি ড. মোমেনের সঙ্গে অন্য দেশের ঋণের ফাঁদ নিয়ে আলোচনা করেছি। আমি নিশ্চিতভাবে বলতে চাই, বাংলাদেশে চীনের ঋণের কোনও ফাঁদ নেই।