কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছর উপলক্ষে বাংলাদেশ ও বুলগেরিয়া দ্বিপক্ষীয় অংশীদারত্ব আরো জোরদার করতে বেশকিছু উদ্যোগ নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এরই অংশ হিসেবে ইউরোপিয়ান দেশটি তাদের গার্মেন্টস সেক্টরে বাংলাদেশি শ্রমিকদের নিয়োগ দেওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছে।

বুধবার (১১ মে) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেনের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন বুলগেরিয়ার রাষ্ট্রদূত এলিওনোরা দিমিত্রোভা। এসময় এসব ছাড়াও নানা অভিন্ন স্বার্থসংশ্লিষ্ট উদ্যোগ ও অন্যান্য বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন।

এসময় জানানো হয়, দেশটির রাজধানী সোফিয়ায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে একটি সড়কের নামকরণে রাজি হয়েছেন তারা। একই সঙ্গে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে সৃষ্ট ভোজ্যতেল ও খাদ্যসংকট মোকাবিলায় বাংলাদেশকে বুলগেরিয়া থেকে সূর্যমুখী তেল, গম ও ভুট্টা আমদানির অনুরোধ করেছে দেশটি।

বাংলাদেশ ও বুলগেরিয়া এ বছর দুই বন্ধুপ্রতিম দেশের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক প্রতিষ্ঠার ৫০তম বার্ষিকী উদযাপন করবে। ১৯৭২ সালের ২৬ জানুয়ারি দুই দেশ কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন করে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং বুলগেরিয়ার রাষ্ট্রদূত গ্লোবাল উইমেন লিডারস ফোরামে যোগ দিতে ২০১৬ সালের মে মাসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সোফিয়ায় সরকারি সফর এবং বুলগেরিয়ার রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তার বৈঠকের কথা স্মরণ করেন।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে সোফিয়ার একটি রাস্তার নামকরণ এবং বুলগেরিয়ান জাতীয় পুনর্জাগরণের পূর্বপুরুষ সেন্ট পাইসি হিলেন্ডারস্কির নামে ঢাকার একটি রাস্তার নামকরণের প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা হয়েছে। উভয় পক্ষই নীতিগতভাবে কাজ করতে সম্মত হয়েছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন বিভিন্ন আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক ফোরামে বুলগেরিয়ার সমর্থনের প্রশংসা করেন এবং ২০২৩-২৫ মেয়াদে জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলে বাংলাদেশের প্রার্থী হওয়ার জন্য তাদের সমর্থন কামনা করেন। বুলগেরিয়ার রাষ্ট্রদূত বুলগেরিয়ায়, বিশেষ করে গার্মেন্টস সেক্টরে বাংলাদেশি শ্রমিকদের নিয়োগ দেওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেন। এ উদ্যোগের প্রশংসা করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন দুই দেশের মধ্যে ব্যবসায়িক প্রতিনিধি দলের নিয়মিত আদান-প্রদানের ওপর গুরুত্বারোপ করেন এবং বাংলাদেশে চমৎকার সুযোগ-সুবিধা তুলে ধরে বুলগেরিয়ার রাষ্ট্রদূতকে বাংলাদেশে বিনিয়োগে উৎসাহিত করতে বুলগেরিয়ার রাষ্ট্রদূতকে অনুরোধ করেন।

বুলগেরিয়ার রাষ্ট্রদূত অনুরোধ করেন, বাংলাদেশ বুলগেরিয়া থেকে ভোজ্যতেল (সূর্যমুখী তেল), ভুট্টা ইত্যাদি আমদানির বিষয়টি বিবেচনা করতে পারে।