গত মাসে ৪৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে (৪ হাজার ৪০০ কোটি ডলার) সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটার কিনে নেওয়ার চুক্তি করেন বিশ্বের অন্যতম শীর্ষ ধনী ইলন মাস্ক। এরপরই তিনি টুইটারের বাণিজ্যিক ও দেশগুলোর সরকারের কাজে ব্যবহৃত টুইটার হ্যান্ডেলগুলোর ওপর মাশুল আরোপের পরিকল্পনার কথা জানান। তবে ইলন মাস্কের উদ্দেশ্য নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন মাইক্রোসফটের যৌথ প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস। তার আশঙ্কা, টুইটারকে একটি ‘বাজে’ প্ল্যাটফর্মে পরিণত করবেন মাস্ক। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে সিএনএন।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের সিইও কাউন্সিল সামিটে বিল গেটস গত বুধবার এসব কথা বলেন। সেখানেই তাকে ইলন মাস্ক কিনে নেওয়ার পর টুইটারের ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্ন করা হয়। যার উত্তর দিতে গিয়ে বিশ্বের অন্যতম শীর্ষ ধনী বলেন, মাস্কের অতীত রেকর্ড ভালো থাকা সত্ত্বেও তিনি টুইটারে ভুয়া তথ্যের বিষয়টি আরও খারাপের দিকে নিয়ে যেতে পারেন।

বিল গেটস বলেন, ‘ইলন মাস্ক আসলে এটা (টুইটার) আরও খারাপের দিকে নিয়ে যাবেন। ‘তিনি (মাস্ক) আসলে কী করতে যাচ্ছেন, সেটা পুরোপুরি পরিষ্কার নয়।’

তবে গেটস স্বীকার করেন, টেসলা, স্পেসএক্সের মতো কোম্পানিতে ইলন মাস্কের রেকর্ড খুবই ভালো। এই কোম্পানিগুলোতে মাস্ক দক্ষ প্রকৌশলীদের একটা দলকে একত্র করতে পেরেছেন। তবে টুইটারের ক্ষেত্রে আগের কোম্পানিগুলোর মতো তিনি সাফল্য পাবেন কি না, তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে তাঁর (গেটস)। আগের ভালো রেকর্ডের জন্য ইলন মাস্ককে ছোট করেও দেখছেন না তিনি।

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের খোলা মন নিয়ে থাকা উচিত এবং কখনোই ইলনকে ছোট করে দেখা উচিত নয়।’