পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, সেনাবাহিনী বা বিদেশি কোনো রাষ্ট্র পাকিস্তানের গণতন্ত্র রক্ষা করতে পারবে না।

বুধবার পাকিস্তানের পেশওয়ারে পাকিস্তান তেহরিক-ই ইনসাফের (পিটিআই) সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। ওই সমাবেশের আগে মঙ্গলবার পিটিআইয়ের অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডলে নেতাকর্মীদের উদ্দেশে এক ভিডিও বার্তায় এই কথা বলেন ইমরান। খবর দি এক্সপ্রেস ট্রিবিউনের।

ভিডিও বার্তায় দ্রুত নির্বাচন দেওয়ার দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, পাকিস্তানের জনগণই কেবল তাদের স্বাধীনতা এবং গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলোর পবিত্রতা রক্ষা করতে পারে।

এ সময় বিরোধী জোটের অনাস্থা ভোট, যাতে তিনি হেরে ক্ষমতাচ্যুত হলেন তার প্রতি ইঙ্গিত করে বলেন, পাকিস্তানের ওপর বড় ধরনের ষড়যন্ত্র চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে। এর আগে রোববার তিনি পাকিস্তানে শাসন পরিবর্তনে ‘বিদেশি ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে স্বাধীনতার লড়াই’ চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার করেন।

সেদিন ইমরান খান বলেন, ১৯৪৭ সালে পাকিস্তান স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে। কিন্তু শাসন পরিবর্তনে বিদেশি ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে আজকে আবার স্বাধীনতার সংগ্রাম শুরু হলো।

এ ছাড়া রোববার নিজের অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টে লিখেছিলেন, পাকিস্তানের জনগণই সব সময় তাদের সার্বভৌমত্ব ও গণতন্ত্র রক্ষা করেছে।