ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের আশেপাশের এলাকাগুলো থেকে পিছু হটেছে রাশিয়ার সেনারা। ইউক্রেনীয় বাহিনীর তীব্র হামলার মুখে কিয়েভের চারপাশ পুনর্দখল হয়েছে। তবে পিছু হটার আগে শহরতলিগুলোতে লাশের স্তুপ রেখে গেছে রুশ সেনারা। রোববার কিয়েভের মেয়র ভিটালি ক্লিটসকো এ দাবি করেছেন।

মেয়র জানিয়েছেন, রাজধানীর উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় শহরতলি বুচা থেকে পিছু হটার আগে ‘নির্মম যুদ্ধাপরাধ’ ঘটিয়েছে রুশ সেনারা। তারা প্রায় ৩০০ বাসিন্দাকে হত্যা করেছে। শহরতলির সড়কগুলোতে শুধু লাশ আর লাশ।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, কোনো ধরনের প্ররোচনা ছাড়াই পিছু হটার সময় রুশ সেনারা বাসিন্দাদের হত্যা করে গেছে। বুচার একটি সেতুর চারপাশে ট্যাংক বিধ্বংসী মাইন ছড়িয়ে ছিটিয়ে রাখা হয়েছে।

মেয়র ভিটালি ক্লিটসকো জার্মান দৈনিক বিল্ডকে বলেছেন,‘বুচা ও কিয়েভের অন্যান্য শহরতলিতে যা ঘটেছে তা কেবল গণহত্যা হিসাবে বর্ণনা করা যেতে পারে। বেসামরিকদের হাত বেঁধে গুলি করা হয়েছে।’

Previous post ক্যালিফোর্নিয়ায় গোলাগুলি, নিহত অন্তত ৬
Next post পাকিস্তানের পার্লামেন্ট ভেঙে দিলেন প্রেসিডেন্ট, ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচন
Close