স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে বাংলাদেশকে উষ্ণ অভিনন্দন জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। আজ শুক্রবার সন্ধ্যায় যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন এক বিবৃতিতে এ অভিনন্দন জানান। একই সঙ্গে তিনি বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক আরো বিস্তৃত করতে যুক্তরাষ্ট্রের অঙ্গীকারের কথা উল্লেখ করেন।

অ্যান্টনি ব্লিনকেন বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র সরকারের পক্ষে আমি বাংলাদেশের জনগণকে আপনাদের স্বাধীনতার ৫১তম বার্ষিকী উদযাপনের জন্য আন্তরিক অভিনন্দন জানাই।

আমাদের দুই দেশই স্বাধীনতার জন্য তীব্র সংগ্রামের পর আবির্ভূত হয়েছিল এবং আমরা উভয়েই আমাদের প্রতিষ্ঠিত গণতান্ত্রিক আদর্শের সঙ্গে বেঁচে থাকার চেষ্টা করি। ’
যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘গত পাঁচ দশক ধরে, আমাদের অব্যাহত সহযোগিতা এখন এবং আগামী প্রজন্মের জন্য একটি নিরাপদ এবং আরো সমৃদ্ধ ভবিষ্যত নিশ্চিত করছে। আমরা বাংলাদেশের চমত্কার অর্থনৈতিক ও উন্নয়নমূলক সাফল্য এবং শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে সবচেয়ে বড় অবদানকারী হিসেবে বিশ্বকে নিরাপদ রাখার জন্য আপনাদের প্রতিশ্রুতিকে সাধুবাদ জানাই। ’

ব্লিনকেন বলেন, ‘আমাদের প্রতিরক্ষা, উন্নয়নমূলক, বাণিজ্যিক এবং জনগণের মধ্যে অংশীদারী আগের চেয়ে শক্তিশালী। আমরা আগামী কয়েক দশক ধরে সেই ভিত্তির ওপর ভিত্তি করে গড়ে তুলব। ’

তিনি বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশ যেন একসঙ্গে উন্নতি করতে পারেন সেজন্য আমরা বাংলাদেশের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক সম্প্রসারিত করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। ’

Previous post পুরস্কার নিতে লন্ডন গেলেন ডা. জাফরুল্লাহ
Next post স্বাধীনতা দিবসে “লস এঞ্জেলেস প্রবাহ”র আনুষ্ঠানিক উদ্ভোধন
Close