মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের পর রাশিয়ার নিষেধাজ্ঞা তালিকায় এবার যুক্ত হলেন যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক ফার্স্টলেডি ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটন এবং কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। এ তালিকায় আরও আছেন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী, প্রতিরক্ষামন্ত্রীসহ মার্কিন প্রশাসনের বেশ ক’জন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা। এমনটাই জানিয়েছে আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম বিবিসি ও আলজাজিরার প্রতিবেদন থেকেও জানা যায়, রাশিয়া গতকাল মঙ্গলবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন, প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিন, জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জেক সালিভান, সিআইএ প্রধান উইলিয়াম বার্নসের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে। এ তালিকায় হিলারি ক্লিনটন ও জাস্টিন ট্রুডোর নামও রয়েছে। রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সেরগেই ল্যাভরভ এ সিদ্ধান্তের কথা জানান।

এ ব্যাপারে রাশিয়ার রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত সংবাদমাধ্যম আরটি ক্রেমলিনের ঘোষণা উদ্ধত করে বলেছে, সম্প্রতি ওয়াশিংটনের পক্ষ থেকে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনসহ রাশিয়ার বেশ ক’জন নেতা ও কর্মকর্তাকে ‘কালো তালিকাভুক্ত’ করার পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে মস্কো মোট ১৩ জন মার্কিনির ওপর এই নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। তালিকায় প্রেসিডেন্ট বাইডেন এবং তার কয়েকজন মন্ত্রী এবং নিরাপত্তা উপদেষ্টা ছাড়াও মার্কিন সেনাপ্রধান জেনারেল মার্ক মাইলি এবং হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র জেন সাকিও রয়েছেন। এছাড়া সাবেক মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটন এবং জো বাইডেনের ছেলে হান্টার বাইডেনকেও রাশিয়ার এ নিষেধাজ্ঞার তালিকায় রাখা হয়েছে।

রাশিয়ার এই নিষেধাজ্ঞাকে অবশ্য প্রতীকী হিসেবেই ধরা হচ্ছে। এই সকল ব্যক্তির সঙ্গে আনুষ্ঠানিক সম্পর্ক বজায় থাকবে এবং প্রয়োজনবোধে উচ্চ পর্যায়ে যোগাযোগও করা যাবে বলে নিষেধাজ্ঞার বিবৃতিতে বলা হয়।