মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসন ঠেকাতে যুক্তরাষ্ট্র কোনো হস্তক্ষেপ করবে না। ক্রেমলিনের বিরুদ্ধে ন্যাটো জোট সংঘাতে জড়ালে সেটি তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধে রূপ নেবে।

হোয়াইট হাউজে দেওয়া এক ভাষণে শুক্রবার বাইডেন এই সতর্কবার্তা দিয়েছেন।

তিনি বলেছেন, ‘আমরা ইউক্রেনে রাশিয়ার বিরুদ্ধে কোনো যুদ্ধ করবো না।’

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি ন্যাটো জোটকে রাশিয়ার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের আহ্বান জানিয়েছেন। এছাড়া তিনি ইউক্রেনকে নো ফ্লাই জোন ঘোষণার জন্যও এই জোটের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিলেন। তবে ন্যাটো ও যুক্তরাষ্ট্র একাধিকবার জেলেনস্কির এই আহ্বান প্রত্যাখ্যান করেছেন।

বাইডেন রাশিয়ার সঙ্গে সরাসরি সংঘাতে না গিয়ে শুক্রবার আরও নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র, জি সেভেন ও ইউরোপীয় ইউনিয়নকে রাশিয়াকে দেওয়া ‘সবচেয়ে পছন্দের দেশ’ মর্যাদা প্রত্যাহার করার আহ্বান জানাবে। এই পদক্ষেপ রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে ‘ইউক্রেনের বিরুদ্ধে তার আগ্রাসনের জন্য আরও বেশি দোষী করবে।’

‘সবচেয়ে পছন্দের দেশ’ মর্যাদার অর্থ হলো, এই তকমা পাওয়া দুটি দেশ একে অপরের সাথে সর্বোত্তম শর্তে বাণিজ্য করতে সম্মত হয়েছে। যেমন- কম শুল্ক, বাণিজ্যে কয়েকটি বাধা এবং সর্বোচ্চ সম্ভাব্য আমদানি অনুমোদন। এই মর্যাদা বাতিল করা হলে জি সেভেনভুক্ত দেশ ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে রাশিয়ার বাণিজ্য করা মুশকিল হয়ে পড়বে।