উপমহাদেশে নৃত্য সম্রাট পন্ডিত বিরজু মহারাজ মারা গেছেন। বার্ধক্যজনিত কারণে তার মৃত্যু হয়েছে। তার বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর।

বেশ কিছুদিন ধরেই কিডনির সমস্যায় ভুগছিলেন পণ্ডিত বিরজু মহারাজ। এমনকি কিডনি ডায়ালাইসিসও করা হয়েছিল। তার নাতনি রাগিনি মহারাজ ভারতীয় সংবাদ সংস্থা এএনআইকে বলেছেন, গেল প্রায় এক মাস ধরেই তার চিকিৎসা চলছিল। গত রাতে সোয়া ১২টা থেকে সাড়ে ১২টার দিকে হঠাৎ শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন তিনি। এর ১০ মিনিটের মধ্যেই তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়, কিন্তু তাকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি।

বিরজু মহারাজ শুধু ভারত নয়, এই উপমহাদেশে কত্থক নৃত্যশিল্পের সম্রাট। তার মৃত্যুতে কত্থক নাচের মহাগুরুর নিষ্ক্রমণ ঘটলো।

বিরজু মহারাজ ছিলেন লখনৌ কালকি বিন্দানি ঘরানার অনুসারী। দেশে-বিদেশে তাঁর অসংখ্য ছাত্র ছাত্রী রয়েছে।

 

১৯৩৭ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি লখনৌয়ের এক কত্থক নৃত্যশিল্পীদের পরিবারে জন্ম বিরজু মহারাজের। তার আসল নাম ব্রিজমোহন নাথ মিশ্র, ছোট থেকেই নাচ-গানের পরিবেশে বেড়ে ওঠা তার।

  1. তাঁর দুই কাকা শম্ভু মহারাজ ও লাচ্ছু মহারাজও ছিলেন একই ঘরানার শিল্পী। বিরজু মহারাজ প্রথম পাঠ নেন তাঁর বাবা আচ্চন মহারাজের কাছ থেকে। পরবর্তী পর্বে তিনি নিজেই একটি প্রতিষ্ঠান বলে গণ্য হন। দেশে বিদেশে তাঁর কত্থক নাচ আদৃত হয়। তিনি বহু সিনেমাতে নৃত্য পরিচালক হিসেবে কাজ করেছেন। বিদেশী রাষ্ট্রনায়করা ভারতে এলেই বিরজু মহারাজের ডাক পড়তো নৃত্যকলা প্রদর্শনের জন্য। আন্তর্জাতিক বহু অনুষ্ঠানে তিনি ভারতের প্রতিনিধিত্ব করেছেন।
Previous post করোনাক্রান্ত সুইডেনের প্রধানমন্ত্রী
Next post আমি জানতাম, নারায়ণগঞ্জবাসী আমাকে বিমুখ করবে না : আইভী
Close