সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প, তার ছেলে ট্রাম্প জুনিয়র এবং ইভাঙ্কা ট্রাম্পকে তদন্তের অধীনে আনার জন্য সমন পাঠানো হয়েছে। ট্রাম্পের আইনজীবীরা এই সমন রদ করার চেষ্টা করছেন। নিউ ইয়র্কের অ্যাটর্নি জেনারেল সোমবার এই সমন জারি করেন।

অ্যাটর্নি জেনারেল লেটিশিয়া জেমসের অফিস জানিয়েছে, ট্রাম্প ও তার সন্তানদের মালিকানাধীন কম্পানির সম্পত্তির মূল্য নির্ধারণসম্পর্কিত তদন্তের জন্য জবানবন্দি নিতে ও সংশ্লিষ্ট দলিলপত্র খতিয়ে দেখতে এই সমন জারি করা হয়েছে। সাবেক প্রেসিডেন্ট ও তার কম্পানির সম্পত্তির মূল্য নির্ধারণে ইচ্ছাকৃতভাবে কম বা বেশি দেখানো হয়েছে- এ সন্দেহে ফৌজদারি তদন্ত চলছে।

গত দুই বছর ধরে অ্যাটর্নি জেনারেল জেমস এই তদন্ত চালিয়ে আসছেন সম্পত্তির দাম বেশি দেখিয়ে ঋণ সুবিধা নেয়া এবং কম দেখিয়ে আয়কর কম দেয়ার অভিযোগ উঠেছে ট্রাম্পের কম্পানির বিরুদ্ধে।

এদিকে ট্রাম্পের আইনজীবীরা এই সমন রদ করার জন্য গত সোমবার আদালতে আবেদন করেছেন। তারা এই সমনের ঘটনাকে ‘সংবিধানবিরোধী’ বলছেন। অ্যাটর্নি জেনারেল এ সমনের মাধ্যমে ট্রাম্পের জবানবন্দি নিয়ে সfক্ষ্যপ্রমাণ হিসেবে অন্য মামলায় ব্যবহার করবেন এই আশঙ্কাও তারা করছেন।

ট্রাম্পের আইনজীবীদের বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় অ্যাটর্নি জেনারেল জেমস জানান, ট্রাম্প ও তার পরিবার যতই বিখ্যাত হন না কেন, আর সবার মতোই তাদের নিয়ম অনুযায়ীই চলতে হবে। রদ করার আবেদন তদন্তকে দেরি করানোর একটি কৌশল মাত্র।