লক্ষ্যমাত্রা পূরণ করে কানাডা এ বছর চার লাখ এক হাজার অভিবাসীকে স্থায়ী বসবাসের সুযোগ দিয়েছে। অভিবাসনবিষয়ক মন্ত্রী সিন ফ্রেসা জানিয়েছেন, আগামী বছরের জন্য এ লক্ষ্যমাত্রা আরও বেশি। ২০২২ সালে ৪ লাখ ১১ হাজার জনকে দেশটিতে স্থায়ীভাবে বসবাসের সুযোগ দিতে চায় কানাডা। খবর রয়টার্সের।

গত বৃহস্পতিবার এ তথ্য জানান তিনি। সিন ফ্রেসা আরও বলেন, ‘গত বছর আমরা একটি উচ্চাভিলাষী লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছিলাম। আমরা তা অর্জন করতে পেরেছি।’

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো ২০১৫ সালে ক্ষমতায় আসার পর থেকেই অভিবাসন সুবিধা বাড়িয়েছেন।

এ-সংক্রান্ত একটি লক্ষ্যমাত্রাও নির্ধারণ করেছেন তিনি। কানাডার অভিবাসন নীতি অনুসারে প্রতি বছর দেশটির মোট নাগরিকের অনুপাতে ১ শতাংশ মানুষকে অভিবাসন সুবিধা দেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, উত্তর আমেরিকার এই দেশটির অর্থনীতির চালিকাশক্তি মূলত অভিবাসীরা। তবে ২০২০ সালে এই স্থায়ী অভিবাসন সুবিধা কমে গিয়েছিল।

সে বছর এক লাখ ৮৫ হাজার মানুষকে এ সুবিধা দেওয়া সম্ভব হয়। এর মূল কারণ ছিল করোনাভাইরাসের ফলে গত বছর দেশটির সীমান্ত অধিকাংশ সময়ই বন্ধ ছিল।

Previous post ২৫ জুনের পর ‘অ্যাকশনে’ যাবেন সাবেক সেনাপ্রধান আজিজ
Next post অবৈধদের দেশে ফেরার মেয়াদ বর্ধিত করল মালয়েশিয়া
Close