২০২২ সালে চীনের বেইজিংয়ে অনুষ্ঠিতব্য উইন্টার অলিম্পিক বয়কটের ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির কূটনীতিকরা ওই অলিম্পিক বয়কট করবেন। ওই অলিম্পিকে কোনো অফিসিয়াল ডেলিগেশনও পাঠাবে না দেশটি। তবে তাদের অ্যাথলেটরা খেলায় অংশ নিতে পারবেন এবং সে জন্য দেশটির সরকার সব ধরনের সহযোগিতা দেবে।

বিবিসির খবরে বলা হয়, এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের যুক্তরাষ্ট্রের ডেমোক্রেটিক এবং রিপাবলিকান, উভয় দলের আইন প্রণেতারাই ওই অলিম্পিক বয়কটের আহ্বান জানিয়েছিলেন। প্রেসিডেন্ট বাইডেনও বয়কটের কথা বলেছিলেন।

এর জবাবে চীন জানিয়েছিল, এমন ঘোষণা এলে তারাও এর পাল্টা ব্যবস্থা নেবে।

যুক্তরাষ্ট্র চীনে উইঘুর মুসলিম নির্যাতনকে গণহত্যা বলে আখ্যায়িত করে এর প্রতিবাদ করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় এ ঘোষণা এলো।

নিয়মিত ব্রিফিংয়ে স্থানীয় সময় সোমবার হোয়াইট হাইজের প্রেস সেক্রেটারি জেন সাকি এ ঘোষণা দেন।

এর জবাবে চীনের কর্মকর্তারা বলেছেন, উইন্টার অলিম্পিক রাজনৈতিক মহড়ার জায়গা নয়। চীন এর বিরুদ্ধে পাল্টা পদক্ষে নেবে।