তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান কর্তৃক বেগম খালেদা জিয়া ও তার নাতনীকে নিয়ে অশ্রাব্য ভাষায় মন্তব্য করার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন ইউনিভার্সিটি টিচার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ইউট্যাব) ৬২৫ জন শিক্ষক। সোমবার বিকালে এক বিবৃতিতে ইউট্যাব নেতৃবৃন্দ এই নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

সংগঠনের প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক ড. এবিএম ওবায়দুল ইসলাম ও মহাসচিব অধ্যাপক ড. মোর্শেদ হাসান খান যুক্ত বিবৃতিতে বলেন, সরকারের তথ্য প্রতিমন্ত্রীর মন্তব্য শোনার মতো নয়। তার মন্তব্য সকল ভব্যতা ও শিষ্টাচারকে ছাড়িয়েছে। সরাসরি নারী বিদ্বেষী ও বর্ণবাদী বক্তব্য দিয়েছেন তিনি। তারা বলেন, গণতান্ত্রিক সভ্য দেশে কোনো মন্ত্রীর মুখ দিয়ে এমন বক্তব্য বের হলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হতো। ডা. মুরাদ দু’জন নারীকে নিয়ে অশালীন মন্তব্য করেছেন। এমনকি আফ্রিকার মানুষদের সম্পর্কেও বর্ণবাদী মন্তব্য করেছেন।

তারা বলেন, মুরাদ হাসান অত্যন্ত কুরুচিপূর্ণ, বাজে ও অশ্লীল ভাষায় নারীদের অবমাননা করেছেন। যা কোনো সুস্থ, স্বাভাবিক মানুষের কাজ নয়। তিনি গর্হিত অপরাধ করেছেন। এ ধরনের বক্তব্যে তথ্য প্রতিমন্ত্রীর নৈতিক স্খলন হয়েছে। তিনি ক্ষমার অযোগ্য ও শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছেন। আমরা শিক্ষক সমাজ অবিলম্বে সরকারের তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানকে হীন রাজনৈতিক দুরভিসন্ধিমূলক নারী ও বর্ণবিদ্বেষী বিকৃত মন্তব্য প্রত্যাহার করে জনসমক্ষে ক্ষমা চেয়ে পদত্যাগ করার আহ্বান জানাচ্ছি।

 

Previous post ৮০ হাজার শ্রমিক নেবে ইতালি
Next post তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদকে পদত‌্যাগের নির্দেশ
Close