বাংলাদেশ ও মালদ্বীপ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরও গভীর করার ওপর গুরুত্বারোপ করেছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ.কে আবদুল মোমেন সোমবার (২২ নভেম্বর) হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে সফররত মালদ্বীপের ভাইস প্রেসিডেন্ট ফয়সাল নাসিম নাসিমের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে গেলে এই প্রত্যায় ব্যক্ত করা হয়।

মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে এসব জানানো হয়েছে।

দুই দেশে নেতৃবৃন্দ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের সকল দিক পর্যালোচনা করেছেন।

সহযোগিতাকে আরও জোরদার করার উপায় নিয়ে আলোচনা করেছেন এবং আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক ইস্যুতে মতামত বিনিময় করেছেন।

ড. মোমেন বলেন, “বাংলাদেশ মালদ্বীপকে অত্যন্ত গুরুত্ব দেয় যেটি ধর্ম, সংস্কৃতি ও মূল্যবোধের মূলে রয়েছে।”

তিনি স্মরণ করেন যে, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং ২০২১ সালের ১৭-১৯ মার্চ বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে মালদ্বীপের রাষ্ট্রপতির রাষ্ট্রীয় সফর বাংলাদেশ-মালদ্বীপ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে এগিয়ে নিতে ভূমিকা রেখেছে।

বাংলাদেশের জনগণের জন্য দুই লাখ কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন উপহার দেওয়ার জন্য তিনি ভাইস প্রেসিডেন্টের মাধ্যমে মালদ্বীপ সরকারকে ধন্যবাদ জানান।

উভয় নেতা চট্টগ্রাম ও মালে সরাসরি শিপিং লাইন স্থাপন এবং দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য বৃদ্ধির জন্য কাজ করতে সম্মত হন।

ড. মোমেন ভাইস প্রেসিডেন্টকে মালদ্বীপের বিভিন্ন ক্ষেত্রে চিকিৎসা শিক্ষা, প্রশিক্ষণ ও দক্ষতা উন্নয়নে প্রয়োজনীয় সহায়তা দেওয়ার আশ্বাস দেন। তিনি বলেন, “মালদ্বীপে বাংলাদেশি প্রবাসী কর্মীরা তাদের অর্থনীতিতে আন্তরিকভাবে অবদান রাখছেন। মালদ্বীপ বাংলাদেশ থেকে বিশেষ পেশাদার ও চিকিৎসক নিয়োগের জন্য গভীর আগ্রহ প্রকাশ করেছে।

মালদ্বীপের ভাইস প্রেসিডেন্ট ফয়সাল নাসিম তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে সোমবার (২২ নভেম্বর) সকালে ঢাকায় এসেছেন।