যুক্তরাষ্ট্রকে পিছনে ফেলে বিশ্বের সবচেয়ে সম্পদশালী দেশ হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছে চীন। একইসাথে গত দু’দশকে সমগ্র বিশ্বের অর্থ ও সম্পদের পরিমাণ বেড়েছে তিনগুণ।

ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে পরামর্শদাতা বৈশ্বয়িক প্রতিষ্ঠান ম্যাককিনসে অ্যান্ড কোং-এর প্রতিবেদনে এসব তথ্য প্রকাশিত হয়েছে। এ প্রতিষ্ঠানের তথ্যানুসারে বিশ্বের ১০ দেশের হাতে রয়েছে ৬০ শতাংশ আয়।

সুইজারল্যান্ডের জুরিখে অবস্থিত ম্যাককিনসে গ্লোবাল ইনস্টিটিউটের এক অংশীদার জান মিসকে এক সাক্ষাৎকারে বলেন, আগের যেকোনো সময়ের চেয়ে এখন আমরা বেশি সম্পদশালী।

বিভিন্ন গবেষণা অনুসারে, ২০২০ সালে সম্পদের পরিমাণ বেড়ে হয়েছে ৫১৪ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার। অথচ বিশ বছর আগে ২০০০ সালে সম্পদের পরিমাণ ছিল মাত্র ১৫৬ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার। যত সম্পদ বৃদ্ধি হয়েছে তার মধ্যে চীনের সম্পদের পরিমাণ হলো এক তৃতীয়াংশ। কারণ, ২০০০ সালে চীনের সম্পদের পরিমাণ ছিল ৭ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার। কিন্তু, ২০২০ সালে চীনের মোট সম্পদের পরিমাণ বেড়ে হয় ১২০ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার। বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থা ডাব্লিউটিওতে যোগ দেয়ার পর দ্রুতগতিতে চীনের অর্থনীতির আকার বড় হয়েছে।