বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের হিসাব হতে চুরি যাওয়া অর্থ দ্রুত উদ্ধারে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করেছে সংসদীয় কমিটি। সাইবার হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংকে রক্ষিত অর্থ চুরি যাওয়া এসব অর্থ দীর্ঘ পাঁচ বছরেও উদ্ধার করতে না পারায় বৈঠকে হতাশা প্রকাশ করা হয়।

বৈঠকে জানানো হয়, ২০১৬ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউইয়র্কে (নিউইয়র্ক ফেড) রক্ষিত বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের হিসাব থেকে ১০ কোটি ১০ লাখ মার্কিন ডলার চুরি হয়। এর মধ্যে শ্রীলঙ্কায় যাওয়া ১ কোটি ৪৫ লাখ ডলার ও ফিলিপাইনে যাওয়া ১ কোটি ৪৫ লাখ ডলার ফেরত আনা হয়েছে। বাকি ৬ কোটি ৬৪ লাখ ডলার ফেরত পাওয়ার বিষয়ে আইনি প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।

সংসদ ভবনের কেবিনেট কক্ষে আজ অনুষ্ঠিত ‘সরকারি প্রতিশ্রুতি সম্পর্কিত সংসদীয় স্থাযী কমিটির ২২তম বৈঠকে এ সুপারিশ করা হয়।
বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন কমিটির সভাপতি মো. মোসলেম উদ্দিন। কমিটির সদস্য মো. মজিবুল হক, গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ এবং আরমা দত্ত বৈঠকে বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন।

সংসদের গণসংযোগ বিভাগ জানায়, বৈঠকে একাদশ জাতীয় সংসদের ফ্লোরে প্রধানমন্ত্রী এবং অর্থমন্ত্রী কর্তৃক প্রদত্ত প্রতিশ্রুতি বিবরণ ও বাস্তবায়নের হালনাগাদ অবস্থা, অর্থ মন্ত্রণালয় গৃহীত প্রকল্পসমূহের বিবরণ এবং বাস্তবায়ন, পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগ (আইএমইডি) কর্তৃক উপস্থাপিত প্রকল্পের বাস্তবায়ন অগ্রগতি সম্পর্কে পর্যালোচনা করা হয়।

কমিটি একজন কর্মকর্তাকে একাধিক প্রকল্পের প্রকল্প কর্মকর্তা নিয়োগ না করার সুপারিশ করে। পাশাপাশি নির্ধারিত সময়ের মধ্যে প্রকল্পের কাজ শেষ করার তাগিদ দেয়।

বৈঠকে বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর, অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ ও চেয়ারম্যান, ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সিনিয়র সচিবদ্বয়, অর্থ বিভাগ, অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের অতিরিক্ত সচিব, বাস্তবায়ন, পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগের মহাপরিচালকসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।