বার্নিল, নিউইর্য়ক, এথেন্স এবং ওয়াশিংটন ডিসি এর পর পঞ্চম মিশন হিসেবে লস এঞ্জেলেসস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল এ এখন থেকে ই-পাসপোর্ট কার্যক্রম চালু হয়েছে।

কনসাল জেনারেল তারেক মোহাম্মদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ই-পাসপোর্ট কার্যক্রমের শুভ সূচনা অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ই-পাসপোর্ট ও স্বয়ংক্রিয় বর্ডার নিয়ন্ত্রণ ও ব্যবস্থাপনা প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সাইদুর রহমান খান এর নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল, ই-পাসপোর্ট কারিগরি টিমের সদস্য ও বাংলাদেশ কনস্যুলেটে কর্মরত কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে কনসাল জেনারেল এবং ই-পাসপোর্ট প্রকল্প পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সাইদুর রহমান খান কয়েকজন আবেদনকারীকে ই-পাসপোর্ট ইনরোলমেন্ট স্লিপ হস্তান্তর করেন।

কনসাল জেনারেল তারেক মোহাম্মদ তার বক্তব্যের শুরুতেই জাতির পিতার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন এবং জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী ও বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর ঐতিহাসিক মাহেন্দ্রক্ষণে লস এঞ্জেলেসে বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল এ ই-পাসপোর্ট সেবা চালু একটি উল্লেখযোগ্য অর্জন হিসেবে অভিহিত করেন। তিনি উল্লেখ করেন যে, প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে ই-পাসপোর্ট একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

তিনি আশা প্রকাশ করেন যে, উন্নত প্রযুক্তি সম্পন্ন ই-পাসপোর্ট সেবা প্রচলনের মাধ্যমে বর্হিবিশ্বে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হবে এবং প্রবাসীদের দীর্ঘ দিনের আশা পূরণ হবে। ই-পাসপোর্ট প্রকল্প পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সাইদুর রহমান খান অনুষ্ঠানে লস এঞ্জেলেসে সফলভাবে ই-পাসপোর্ট কার্যক্রম চালু করতে পেরে সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং প্রকল্প পরিচালক হিসেবে এ কার্যক্রমের বিভিন্ন দিক সংক্ষেপে উপস্থাপন করেন।