যুক্তরাষ্ট্রে সপ্তাহব্যাপী রোড শো’র আয়ােজন করেছে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এণ্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন। আন্তর্জাতিক অঙ্গনে দেশের শেয়ার বাজারের ব্যাক্তি ও প্রবাসী বাংলাদেশি এবং বিদেশী বিনিয়ােগ আকর্ষণ করাই এই রোড শো’র মূল উদ্দেশ্য। প্রবাসীদের এই অনুষ্ঠানের কথা জানেনা প্রবাসের অধিকাংশ বিনিয়ােগকারী, কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ এবং স্থানীয় প্রবাসী সাংবাদিকরা। আড়াইশ’ এর অধিক মানুষ যারা বাংলাদেশ থেকে এসেছেন তারাই ছিলেন এই রোড শাে’র বক্তা এবং শ্রোতা। মুষ্টিমেয় হাতে গোনা কয়েকজন প্রবাসী এতে আমন্ত্রণ পায়। বাংলাদেশ থেকে আগত সবার হোটেল খরচ ছিল মাত্র আটশ ডলার (প্রতিদিনের খরচ বাবদ)। প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের আমন্ত্রণ না জানিয়ে সরকারের এত টাকা খরচ করে কী লাভ হয়েছে এটাই প্রশ্ন উঠেছে প্রবাসী কমিউনিটির মধ্যে।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পালনের অংশ হিসেবে নিউইয়র্ক, ওয়াশিংটন ডিসি, লস এঞ্জেলেস ও স্যান্ফ্রানসিক্সোতে ছিল প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের নিয়ে সম্মেলন, যেখানে বিশেষ এক শ্রেণীর মানুষের উপিস্থিতি থাকলেও ছিলনা বিনিয়োগযোগ্য ব্যাক্তিবর্গ।

বরং অভিযোগ উঠেছে, প্রকৃত বিনিয়োগ উৎসাহী প্রবাসীদের এ সম্মেলনে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। গণমাধ্যমকেও উক্ত অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। সমন্বয়হীনতার অভিযোগ উঠেছে লস এঞ্জেলেস ও নিউইয়র্কের বাংলাদেশ কন্সুলেটের বিরুদ্ধে।