কথা কাটাকাটি থেকে ঝগড়া। মারামারি। এক পর্যায়ে লাঠি দিয়ে মাথায় বাড়ি। মালয়েশিয়া প্রবাসী এক বাংলাদেশি এভাবে নিজের স্বদেশী রুমমেটকে খুন করে লাশ গুম করেছেন। সেই লাশ উদ্ধার হয়েছে ১৩ দিন পর!

মালয়েশিয়ার স্থানীয় ভাষার গণমাধ্যম সিনার নিউজের প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, ওই দুই বাংলাদেশি তামান মুতিয়ারা এলাকার একটি বাড়িতে থাকতেন।

স্থানীয় পুলিশ কমিশনার মোহদ সাঈদ ইব্রাহিম জানিয়েছেন, ১৩ জুলাই এই ঘটনা ঘটে। পুলিশ জেনেছে বুধবার সন্ধ্যায়।

অপরাধী এবং ভুক্তভোগী দুজনই একটি কনস্ট্রাকশন সাইটে কাজ করেন। অন্য কর্মীরা ভুক্তভোগীকে বেশ কয়েক দিন দেখতে না পেয়ে চিন্তিত হয়ে পড়েন।

পুলিশের কথায়, ’৩০ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি দীর্ঘ দিন ধরে কোম্পানিটিতে কাজ করছিলেন। তাকে হঠাৎ না দেখে আরেক বাংলাদেশির কাছে তার বিষয়ে জানতে চাওয়া হয়। তখন তিনি এলোমেলো কথা বলতে থাকেন।’

‘সন্দেহজনক ব্যক্তির বয়স ২৯ বছর। তারা একই সঙ্গে থাকতেন। বিপদ বুঝে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু ধরা পড়ে গেছেন।’

পুলিশের দেয়া তথ্য থেকে জানা গেছে, অপরাধী ইতিমধ্যে খুনের বিষয়টি স্বীকার করেছেন। যে ঘরে তারা থাকতেন, সেখানেই লাশ কবর দেন।