আন্তর্জাতিক ভ্যাকসিন ইনস্টিটিউট (IVI) আইভিআই-এর সদর দফতরে আইভিআই-এ বাংলাদেশের আনুষ্ঠানিক যোগদান উপলক্ষ্যে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত ওই অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ সরকারের প্রতিনিধিবৃন্দ, কোরিয়ায় বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকবৃন্দ এবং আইভিআই-এর সদস্য দেশগুলির প্রতিনিধিবৃন্দ সরাসরি এবং অনলাইনে অংশগ্রহণ করেন।

অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম শুভেচ্ছামূলক ভিডিও বার্তা প্রেরণ করেন। দক্ষিণ কোরিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আবিদা ইসলাম অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। আইভিআই-এর মহাপরিচালক Dr. Jerome Kim এবং উক্ত প্রতিষ্ঠানের অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দের উপস্থিতিতে আইভিআই সদর দফতরে রাষ্ট্রদূত আবিদা ইসলাম বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলন করেন। এছাড়া ইনসেপ্টা ভ্যাকসিন লিমিটেডের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবদুল মুক্তাদির এবং আইসিডিডিআরবি-এর নির্বাহী পরিচালক ড. তাহমিদ আহমেদ অনলাইনে উক্ত অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন এবং বক্তব্য প্রদান করেন।
আইভিআই-এর বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান George Bickerstaff, দক্ষিণ কোরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আন্তর্জাতিক সংস্থা ব্যুরোর মহাপরিচালক Chang Wook-jin, সিউলস্থ সুইডেন দূতাবাসের চার্জ দ্য’আফেয়ার্স Gabriella Auhustsson এবং সিউলস্থ ফিনল্যান্ড দূতাবাসের সহকারী মিশন প্রধান Mika Ruotsalainenm অনলাইনে উক্ত অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন এবং অভিনন্দন বার্তা প্রদান করেন।

দক্ষিণ কোরিয়ায় নিযুক্ত ভারতের রাষ্ট্রদূত Sripriya Ranganathan অনলাইনে উক্ত অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন এবং বক্তব্য প্রদান করেন। এ সময় আইভিআই-এর মহাপরিচালক Dr. Jerome Kim বাংলাদেশের সাথে আইভিআই-এর সম্পর্ককে তুলে ধরে একটি বিশদ ও তথ্যমূলক উপস্থাপনা প্রদান করেন।

আইভিআই-এর বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান George Bickerstaff তাঁর স্বাগত বক্তব্যে আইভিআই প্রতিষ্ঠা-চুক্তির প্রথম পর্যায়ের স্বাক্ষরকারী দেশগুলোর মধ্যে অন্যতম দেশ হিসেবে বাংলাদেশের আনুষ্ঠানিক সদস্য প্রাপ্তিতে বাংলাদেশকে স্বাগত জানান। তিনি তাঁর বক্তব্যে নিরাপদ, কার্যকর ও সাশ্রয়ী মূল্যের ভ্যাকসিন আবিষ্কার, উন্নয়ন ও সরবরাহের ক্ষেত্রে বিগত দুই দশক ধরে বাংলাদেশ সরকারের সাথে আইভিআই-এর সহযোগিতামূলক সম্পর্কের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন।

শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান অনুষ্ঠানের পরে আইভিআই-এর সদর দফতরে বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। রাষ্ট্রদূত আবিদা ইসলাম বাংলাদেশের জাতীয় সংগীতের বাজানোর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলন করেন এবং অতঃপর দক্ষিণ কোরিয়ার জাতীয় সংগীত বাজানো হয়।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ ২৮ অক্টোবর ১৯৯৬ তারিখ আন্তর্জাতিক ভ্যাকসিন ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা চুক্তি স্বাক্ষর করে। অতঃপর বাংলাদেশ ২১ মার্চ ২০২১ তারিখ চুক্তিটি অনুসমর্থন করে এবং জাতিসংঘ ৫ এপ্রিল ২০২১ তারিখ চুক্তির অনুসমর্থন প্রাপ্তির প্রজ্ঞাপন জারি করে। বাংলাদেশের পক্ষে উক্ত চুক্তিটি ১ মে ২০২১ তারিখ থেকে কার্যকর হয়।