জাতীয় সংসদের ত্রয়োদশ অধিবেশনের সমাপনী বক্তব্যে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের নানা কর্মকাণ্ড তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিএনপির যে পি, সেটি দিয়ে পাকিস্তান বোঝায়।

শনিবার (০৩ জুলাই) জাতীয় সংসদে ২০২১-২ অর্থ বছরের বাজেট অধিবেশনের সমাপনী দিন ছিল।

প্রধানমন্ত্রী এসময় বিএনপিকে পাকিস্তানপন্থী রাজনৈতিক দল হিসেবে অভিহিত করেন। তিনি বলেন, ‘বি..এন..পি, বাংলাদেশ না, পাকিস্তান হ্যাঁ…এই তো বিএনপি? এই হলো তাদের রাজনীতি, এই হলো তাদের গণতন্ত্র।’

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার পর নানা ঘটনাপ্রবাহে সে সময়ের উপসেনাপ্রধান জিয়াউর রহমান রাষ্ট্রীয় ক্ষমতার নিয়ন্ত্রণ নেন। তার শাসনামলে ১৯৭৭ সালে ‘হ্যাঁ-‘না’ভোট, ১৯৭৮ সালের রাষ্ট্রপতি নির্বাচন, ১৯৭৯ সালের জাতীয় নির্বাচন নিয়ে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘জিয়াউর রহমান দিয়েছিলেন কারফিউ গণতন্ত্র। অনেকগুলো দল করার সুযোগ তিনি দিয়েছিলেন এটা ঠিক। কিন্তু সেখানে গণতান্ত্রিক চর্চা ছিল না। নির্বাচনের যে রেজাল্ট তা আগেই নির্দিষ্ট।’

জিয়াউর রহমানের পথেই সেনাপ্রধান থাকা অবস্থায় ক্ষমতা দখল করেন জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। তার আমলে ৮৬ সালের জাতীয় নির্বাচনের কথাও উল্লেখ করেন শেখ হাসিনা। বলেন, নির্বাচনে ৪৮ ঘণ্টা ভোট আটকে রেখে আওয়ামী লীগকে হারাল।

জিয়া, খালেদা জিয়া, এরশাদ সবই একই বৃন্তের কয়েকটি ফুল। তারাও একই কাজ করেছে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, ‘১৫ আগস্ট জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যায় যে পরিকল্পনা করা হয়, তার মূল শক্তি ছিল জিয়াউর রহমান। এটা কর্নেল রশিদ এবং ফারুক তাদের বিবিসি ইন্টারভিউতে স্পষ্ট আছে। তিনি ছিলেন মোশতাকের (খোন্দকার মুশতাক আহমেদ) প্রিয় বান্দা।’