বাংলাদেশ প্রথমবারের মতো ঋণদাতার কাতারে নাম লেখাতে যাচ্ছে। এই নিয়ে সেন্ট্রাল ব্যাংক অব শ্রীলঙ্কার সঙ্গে বাংলাদেশ সমঝোতা স্মারক সই করতে যাচ্ছে বলে বাংলাদেশ ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট সূত্র জানা গেছে।

বাংলাদেশ ব্যাংক প্রথমবারের মতো কোনো দেশের সঙ্গে মুদ্রা বিনিময় বা কারেন্সি সোয়াপ চুক্তির মাধ্যমে এ ধরনের বিনিয়োগ করতে চলেছে।

জানা গেছে, গত ২৩ মে বাংলাদেশ ব্যাংক পরিচালনা পর্ষদের ৪১৪তম সভা অনুষ্ঠিত হয়। ওই সভায় বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ থেকে শ্রীলঙ্কার কেন্দ্রীয় ব্যাংককে ২০ কোটি ডলার লোন দেওয়ার বিষয়ে আলোচনা হয়।

শ্রীলঙ্কায় গৃহযুদ্ধের ক্ষত ও উন্নয়ন প্রকল্পে আর্থিক সংকটে পড়ায় বাংলাদেশ বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ থেকে লোন দিতে যাচ্ছে। এখন শ্রীলঙ্কার বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ নেমে এসেছে ৪ বিলিয়ন ডলারের ঘরে। এদিকে করোনার সময় বাংলাদেশের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বেড়ে ৪৫ বিলিয়ন ডলার।

শ্রীলঙ্কাকে লোন দেওয়ার বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র ও নির্বাহী পরিচালক মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, প্রতিবেশী দেশ হিসেবে শ্রীলঙ্কাকে লোন দেওয়ার বিষয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদ ইতোমধ্যে সমঝোতা স্মারকের খসড়ায় অনুমোদন দিয়েছে। তবে কারেন্সি সোয়াপ-সংক্রান্ত সমঝোতা স্মারকের খসড়াটি সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের ভেটিংয়ের পর চূড়ান্ত হবে।