ফিলিস্তিনের ওপর হামলা থামানোর ব্যাপারে ইসরায়েল কিছুই ভাবছে না বলে ফের আক্রমণাত্মক মন্তব্য করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু।

বিদেশি সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ‍বুধবার তিনি বলেন, ‘আমরা স্টপওয়াচ ধরে রাখিনি। অভিযানের বিষয় নিয়ে ভাবছি।’

নেতানিয়াহু এর আগে বলেন, ফিলিস্তিনের প্রতিরোধ সংগঠন হামাসকে দমনের চেষ্টা করছেন তারা। যতক্ষণ প্রয়োজন হামলা চলবে।

তিনি বলেন, ‘তাদের সঙ্গে বোঝাপড়ার মাত্র দুটি পথ। হয় জয় করতে হবে-এটা সব সময় সম্ভব; অথবা তাদের প্রতিরোধ করতে হবে।’

‘আমরা এখন আরও শক্তি নিয়ে প্রতিরোধের চেষ্টা করছি। আমরা কোনো কিছু শাসন করছি না।’

গাজায় ইসরায়েলি বিমান ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় এবং গোলাবর্ষণে এখন পর্যন্ত ১৯২ জন নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে ৫৮ শিশু ও ৩৪ নারী রয়েছেন। এছাড়া পশ্চিম তীরে বিক্ষোভে গুলি চালিয়ে ১১ ফিলিস্তিনিকে হত্যা করা হয়েছে।

হত্যাযজ্ঞের মধ্যে জাতিসংঘের ১৫ সদস্যের নিরাপত্তা কাউন্সিল বৈঠকে বসলেও আনুষ্ঠানিক কোনো বিবৃতিতে সম্মত হতে পারেনি। বৈঠকের পর কেউ এ নিয়ে মুখ খোলেনি।

বিবিসি বলছে, ইসরায়েলের ঘনিষ্ঠ মিত্র যুক্তরাষ্ট্র এগিয়ে আসেনি। কারণ তারা মনে করছে যে এটি দুই দেশের কূটনৈতিক প্রক্রিয়াকে প্রভাবিত করতে পারে।

রবিবারের বৈঠকে মার্কিন রাষ্ট্রদূত লিন্ডা থমাস-গ্রিনফিল্ড বলেন, ‘সব পক্ষ যদি অস্ত্র-বিরতি চায়’ তাহলে তাতে সমর্থনে প্রস্তুত রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

এছাড়া সংঘাত নিরসনে তারা নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছে বলেও জানান তিনি।