করোনাভাইরাসের টিকা পেতে চীনের উদ্যোগে ছয়টি দেশের নতুন প্ল্যাটফর্মে যোগ দিচ্ছে বাংলাদেশ।

‘ইমার্জেন্সি ভ্যাকসিন স্টোরেজ ফ্যাসিলিটি ফর কোভিড ফর সাউথ এশিয়া’ নামের এই প্ল্যাটফর্মের দেশগুলো হলো- চীন, বাংলাদেশ, আফগানিস্তান, পাকিস্তান, নেপাল ও শ্রীলঙ্কা।

এ বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন সমকালকে বলেন, এটা কোনো জোট নয়। এটি ছয় দেশের সহযোগিতার একটি প্ল্যাটফর্ম।

এর আগে গণমাধ্যমকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘যখন যার দরকার হবে এই প্ল্যাটফর্ম থেকে তারা ভ্যাকসিনগুলো সংগ্রহ করবে। এটাকে বলছি সাউথ এশিয়ার ছয় দেশের পারস্পরিক সহযোগিতা। এখন আমরা চীনের সঙ্গে সম্পর্ক করেছি। চীন আমাদের খুব শিগগিরই ভ্যাকসিন দেবে।’

আব্দুল মোমেন জানান, শুরুতেই চীন উপহার হিসেবে বাংলাদেশকে ছয় লাখ ডোজ টিকা উপহার দেবে। এজন্য একটি সমঝোতা স্মারক সই হবে, যেটির খসড়া তৈরি শেষ হয়েছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও জানান, একই সঙ্গে নিজেরা টিকা তৈরির জন্য রাশিয়ার সহায়তা নিচ্ছে বাংলাদেশ। এক্ষেত্রে বাংলাদেশকে টিকা তৈরির প্রযুক্তি দেবে রাশিয়া। এ বিষয়েও একটি সমঝোতা স্মারক সই হচ্ছে। তবে প্রযুক্তিটি অন্য কোথাও দেওয়া যাবে না- এমন শর্তে টিকা তৈরির এ প্রযুক্তি দিতে সম্মত হয়েছে দেশটি। বাংলাদেশ তাতে সম্মতি জানিয়েছে। এক্ষেত্রে বাংলাদেশের ওষুধ প্রস্তুতকারী কোনো প্রতিষ্ঠানকে এই প্রযুক্তি দেওয়ার কথা বলেছে রাশিয়া। এ পুরো প্রক্রিয়া শেষ হতে ২ থেকে ৩ মাস লাগতে পারে।