পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি আবার বাগ্‌যুদ্ধে জড়ালেন। বুধবার নির্বাচনী জনসভায় মমতার ‘দুয়ারে সরকার’ কর্মসূচিকে কটাক্ষ করে মোদি বলেছেন, ‘মানুষের প্রয়োজনে আপনাকে পাশে পাওয়া যায় না। আর ভোটের সময় দুয়ারে সরকার করছেন।’ মেদিনীপুরের কাঁথির ওই সভায় তিনি বলেন, মানুষই দিদিকে দরজা দেখিয়ে দেবে।

অন্যদিকে বাঁকুড়ার বিষুষ্ণপুরে সভায় তৃণমূল নেত্রী মমতা বলেন, ‘আমি প্রধানমন্ত্রীর চেয়ারকে সম্মান করতাম, এখনও করি। কিন্তু এখন যিনি প্রধানমন্ত্রী, তিনি মিথ্যা ছাড়া কিছু বলতেই পারেন না। মোদির মতো মিথ্যাবাদী আমি জীবনে দেখিনি।’

মমতা বলেন, ‘ভোটের আগে নরেন্দ্র মোদি ১৫ লাখ রুপি দেবেন বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। বিজেপির প্রতিশ্রুতির সেই টাকা পেয়েছেন? আমি যেটা বলেছি, সেটা করেছি। বিজেপি কিছু করতে পারেনি। মোদির মতো মিথ্যা কথা আমি বলি না।’ তিনি বলেন, ‘মোদির তিনটি সিন্ডিকেট। ওরা সব লুট করে নিয়ে যাবে। শুধু ওরা খাবে, আর বাংলার মানুষ কেঁদে বেড়াবে।’

এদিন বহিরাগত ইস্যুতে তৃণমূল নেত্রীর তীব্র সমালোচনা করেন মোদি। তিনি বলেন, ‘কেউ বহিরাগত নয়। সবাই এই ভূমির সন্তান। এই ভূমি বঙ্কিম বাবুর, রবি ঠাকুরের, সুভাষ বসুর, শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের। বঙ্গভূমি ও ভারতভূমি একই। আমরা ভারতবাসীর সন্তান। এই বঙ্গভূমিতে কেউ বহিরাগত নন। এখানে কোনো ভারতবাসী বহিরাগত নন।’

প্রচারে নামছেন মিঠুন: বৃহস্পতিবার প্রচারে নামছেন গেরুয়া শিবিরের অভিনেতা নেতা মিঠুন চক্রবর্তী। এদিন কয়েকটি রোড-শো করবেন তিনি। এদিন রাজ্যে প্রচারে অংশ নেবেন বিজেপি নেতা অমিত শাহ ও যোগী আদিত্যনাথ। একের পর এক সভা করবেন গৌতম গম্ভীর, রাজনাথ সিংহ। আগামী শনিবার প্রথম দফায় ভোট গ্রহণ হবে। ২৯৪ আসনে আট দফায় ভোট চলবে ২৯ এপ্রিল পর্যন্ত। ফল প্রকাশ করা হবে ২ মে।