লস এঞ্জেলেস্থ বাংলাদেশ কন্সুলেট যথাযোগ্য মর্যাদা ও উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যে দিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস ২০২১ উদযাপন করা হয়েছে। চলমান বৈশ্বিক মহামারি করোনার মধ্যে, বিশেষ করে লস এঞ্জেলেসে করোনা পরিস্থিতির কারণে স্থানীয় সরকারের স্বাস্থ্য সুরক্ষাবিধি প্রতিপালন করে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস ২০২১ আয়োজন করা হয়।

কন্সাল জেনারেল কর্তৃক জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্যে দিয়ে জাতির পিতার জন্মদিনের কর্মসূচির সূচনা হয়। এরপর চ্যান্সেরীর বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে স্থাপিত জাতির পিতার ম্যুরালে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে সম্মান জানানো হয়। ধর্মগ্রন্থ থেকে পাঠ করার পর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন ও জতীয় শিশু দিবস ২০২১ উপলক্ষে প্রেরিত রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্র মন্ত্রী ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ করা হয়।

দিবসটি উপলক্ষে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কর্তৃক প্রেরিত জাতির পিতার জীবন ও কর্মের উপর নির্মিত একটি এ্যানিমেটেড ভিডিও চিত্র প্রদর্শিত হয়।

এছাড়া শিশু-কিশোরদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা ও বিশেষ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

কন্সাল জেনারেল তারেক মোহাম্মদ তার বক্তব্যে বঙ্গবন্ধুর প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন ও স্বাধীনতা সংগ্রামে এবং দেশ গঠনে জাতির পিতার অবিস্মরণীয় অবদানের কথা তুলে ধরেন।

তিনি জতির পিতার জীবন, কর্ম ও অবদান সম্পর্কে সংক্ষেপে আলোচনা করেন এবং শিশু কিশোরদেরকে বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্ম থেকে শিক্ষা গ্রহণের মাধ্যমে দেশে ও বিদেশে সুনাগরিক হিসেবে নিজেদেরকে প্রতিষ্ঠিত করার আহ্বান জানান।

একই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ সরকারের গৃহীত কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়নের মাধ্যমে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা গঠনে সকলকে যার যার অবস্থান থেকে কাজ করার আহ্বান জানান।

জাতির পিতার পরিবারের শাহাদত বরণকারী সকল সদস্যদের রূহের মাগফেরাত এবং দেশের শান্তি, মঙ্গল ও উন্নয়ন কামনা করে বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। সব শেষে কেক কেটে জাতির পিতার জন্মদিন উদযাপনের মধ্যে দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘটে।