স্বপ্নদর্শী (শিশুকালে পরিবারের সঙ্গে আসা) হিসেবে পরিচিত অনিবন্ধিত অভিবাসী ব্যক্তিদের দ্রুত নাগরিকত্ব প্রদানের পথ তৈরিতে যুক্তরাষ্ট্রের হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভে বিল পাস হয়েছে। সেই সঙ্গে বিপুল পরিমাণ কৃষি শ্রমিকদেরও নাগরিকত্ব প্রদানের আওতায় আনা হচ্ছে। বার্তাসংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা যায়।

‘আমেরিকান ড্রিম অ্যান্ড প্রমিস অ্যাক্ট’ নামে বিলটি ২২৮/১৯৭ ভোটে পাস হয়। এতে হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভের সকল ডেমোক্রেটিক সদস্য ভোট দেন। ৯জন রিপাবলিকান সদস্য বিলটি পাসে সম্মতি দেন।

এই বিল পাসের মাধ্যমে ২৩ লাখের বেশি শিশুকালে পরিবারের সঙ্গে আসা (ড্রিমার্স) স্বপ্নদর্শী ব্যক্তিদের স্থায়ী আইনি মর্যাদা এবং মার্কিন দ্রুত নাগরিকত্ব অর্জনে সুবিধা দেবে।

এছাড়া ডেমোক্র্যাটিক নেতৃত্বাধীন হাউস ‘ফার্ম ওয়ার্কফোর্স আধুনিকীকরণ আইন ২৪৭ এবং ১৭৪’ পাস করেছে। এই আইন পাসের ফলে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত কয়েক হাজার কৃষিশ্রমিক অনুমোদন ছাড়াই আইনি মর্যাদা পাবেন। এই আইনটি পাসে ৩০ জন রিপাবলিকান ভোট দেন এবং একজন ডেমোক্র্যাট বিপক্ষে ভোট দেন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বাইডেন ক্ষমতায় এসেই অভিবাসীদের নাগরিকত্ব দেওয়ার বিষয়ে সংস্কারের পদক্ষেপ নেন। তিনি অভিবাসন নীতি সংস্কার ‘দীর্ঘদিনের চাওয়া’ বলে দাবি করেন।

তিনি জানান, পূর্বসূরি ডোনাল্ড ট্রাম্পের ‘ভুল নীতি’ থেকে সরে আসার লক্ষ্য ছিল তাঁদের। অবৈধ অভিবাসীদের প্রবেশ ঠেকানো, বৈধ অভিবাসী কমানো এবং দশকের পর দশক ধরে বসবাস করা কাগজপত্রহীন অভিবাসীদের বিতাড়িত করাই ছিল ট্রাম্পের অভিবাসন নীতির প্রধান লক্ষ্য। অভিবাসীদের ঢল থামাতে সীমান্তজুড়ে দেয়াল নির্মাণ, বৈধ অভিবাসীদের বিতাড়ন ও বিদেশি দক্ষ কর্মীদের ভিসা দেওয়া কমিয়ে দেওয়া হয়েছিল ট্রাম্পের শাসনামলে।

অভিবাসন নিয়ে ট্রাম্পের এসব নীতি সংস্কারের প্রেক্ষিতে এই বিল দুইটি পাস করা হলো।