প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক উপদেষ্টা হোসেন তৌফিক ইমামের (এইচ টি ইমাম) মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখপ্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এক শোকবার্তায় এইচ টি ইমামের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী।

কিডনি জটিলতাসহ বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন অসুস্থতা নিয়ে প্রায় মাসখানেক আগে এইচ টি ইমাম ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি হন।

বুধবার দিবাগত রাত সোয়া ১টায় তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী বিপ্লব বড়ুয়া।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় এইচ টি ইমামের জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে বিকাল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত মরদেহ রাখা হবে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে। বাদ আসর গুলশান আজাদ মসজিদে জানাজা শেষে দাফন করা হবে বনানী কবরস্থানে।

১৯৩৯ সালে জন্মগ্রহণকারী এইচ টি ইমামের বয়স হয়েছিল ৮২ বছর। দেশের প্রথম মন্ত্রিপরিষদ সচিব তিনি। ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন তিনি। ২০১৪ সাল থেকে প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন হোসেন তৌফিক ইমাম।

১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় এইচ টি ইমাম প্রবাসী সরকারের মন্ত্রিপরিষদ সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

এইচ টি ইমাম রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। পরবর্তীকালে তিনি লন্ডন স্কুল অব ইকোনমিকস থেকে উন্নয়ন প্রশাসনে ডিগ্রি লাভ করেন।