মার্কিন কোম্পানি ফাইজার ও জার্মান কোম্পানি বায়োএনটেকের করোনাভাইরাসের টিকা ৯০ শতাংশের বেশি কার্যকর। তবে রাশিয়া জানিয়েছে তাদের স্পুটনিক-৫ টিকা ৯২ শতাংশ কার্যকর।

রাশিয়ান ডিরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট ফান্ডের (আরডিআইএফ) প্রধান কিরিল দিমিত্রিয়েভ বলেছেন, আমরা তথ্য-উপাত্তে দেখছি, আমাদের খুবই কার্যকর একটি ভ্যাকসিন রয়েছে। এটি এমন এক ধরনের সংবাদ যা একদিন ভ্যাকসিনের প্রস্তুতকারকরা তাদের নাতি-নাতনিদের সঙ্গে গল্প করবেন।

আরডিআইএফ বলছে, গামালিয়া ইনস্টিটিউটের ভ্যাকসিনটি ১৬ হাজার স্বেচ্ছাসেবীর দেহে প্রয়োগ করা হয়েছিল। দুটি করে ডোজ দেয়ার পর অন্তর্বর্তীকালীন ফলাফলে ভ্যাকসিনটি করোনা প্রতিরোধে ৯২ শতাংশ কার্যকর বলে প্রমাণ পাওয়া গেছে।

ভ্যাকসিনটি তৈরি ও বিশ্বজুড়ে বাজারজাতকরণের জন্য আর্থিক সহায়তা দিয়ে আসছে রাশিয়ার এই সংস্থা।

এর আগে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন দাবি করেন, রাশিয়ার তৈরি করোনাভাইরাসের সব টিকাই কার্যকর।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, মঙ্গলবার পুতিন সাংহাই কো-অপারেশন অর্গানাইজেশনের (এসসিও) সম্মেলনে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে এসব বলেন।

তিনি বলেন, রাশিয়ায় ইতিমধ্যে দুটি নিবন্ধিত টিকা রয়েছে। গবেষণায় দেখা গেছে, গবেষণা নিশ্চিত করেছে, এই টিকাগুলো নিরাপদ। এই টিকা ব্যবহারের পর কোনো গুরুতর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যায়নি। আর সব টিকাই নিরাপদ।